মেসেঞ্জারে নতুন প্রাইভেসি সেটিংস

ব্যবহারকারীকে পাঠানো বার্তা নিয়ন্ত্রণের সুবিধা দিতে ফেসবুকের পক্ষ থেকে মেসেঞ্জারে প্রাইভেসি নিয়ন্ত্রণ সুবিধা যুক্ত করা হচ্ছে। এ ছাড়া মেসেঞ্জার অ্যাপে নতুন সেটিংস পরীক্ষা চালাবে ফেসবুক। এতে মেসেঞ্জারে পছন্দ অনুযায়ী কল ও বার্তা আসার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন ব্যবহারকারী।

ফেসবুকের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ইনস্টাগ্রামে বর্তমানে চালু থাকা ফিচারের মতোই ফেসবুকে নতুন ফিচার মেসেঞ্জারে আনা হবে। ডিসেম্বর নাগাদ মেসেঞ্জারে আরও বেশি নিয়ন্ত্রণ থাকবে ব্যবহারকারীর হাতে। ফেসবুকে বন্ধু নয়, এমন কেউ মেসেঞ্জারে কোনো ছবি পাঠালে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঝাপসা করে দেবে ফেসবুক। অনাকাঙ্ক্ষিত ব্যক্তির কাছ থেকে ফেসবুকে ছবি বা বার্তা পাঠিয়ে বিব্রত করা বন্ধ হবে এতে।

ফেসবুকের পক্ষ থেকে ‘অ্যাপ লক’ ফিচারটিও আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মুক্ত করা হচ্ছে। এতে মেসেঞ্জার চ্যাটে বাড়তি আরেক স্তরের নিরাপত্তা যুক্ত হবে। এ পদ্ধতিতে মেসেঞ্জার চ্যাট লক করে রাখা যাবে। মেসেঞ্জারে ঢুকতে হলে ফেস বা ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিয়ে ঢুকতে হবে। এ ফিচারটি ইতিমধ্যে আইওএস প্ল্যাটফর্মে চালু হয়েছে। শিগগিরই অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মেও এ সুবিধা যুক্ত হবে।

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

ফাস্ট চার্জিং সুবিধা নিয়ে নতুন স্মার্টফোন

মোবাইল ফটোগ্রাফিকে প্রাধান্য দিয়ে অপো দেশের বাজারে এনেছে ‘এ’ সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এ৯২। বড় স্টোরেজ, সাইড ফিঙ্গারপ্রিন্ট এবং ৪৮ মেগাপিক্সেলের এআই কোয়াড ক্যামেরা থাকছে এই ফোনে।

ডিজাইন ও ডিসপ্লে

ফোনটিতে রয়েছে ৬.৫ ইঞ্চি এফএইচডি ডিসপ্লে, যার রেজ্যুলেশন ১০৮০ পিক্সেল বাই ২৪০০ পিক্সেল। এটিই ‘এ’ সিরিজের প্রথম স্মার্টফোন, যাতে পাঞ্চহোল ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। ফোনটির স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮৩.৪ শতাংশ। নিও-ডিজাইনের পাতলা ডিসপ্লে হওয়ায় ভিডিও কিংবা অনলাইন গেম খেলে দারুণ অভিজ্ঞতা মিলবে ফোনটিতে। থ্রিডি কোয়াড কার্ভ ডিজাইনের এই ফোনে থাকছে সাইড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

ক্যামেরা

অপো এ৯২ স্মার্টফোনটির পেছনে ৪৮ মেগাপিক্সেলের এআই কোয়াড ক্যামেরা সেটআপে আছে একটি ৪৮ মেগাপিক্সেলের (এফ/১.৭) প্রধান সেন্সর, ৮ মেগাপিক্সেল ১১৯ ডিগ্রি আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স ও দুটি পোর্ট্রেট স্টাইল লেন্স। প্রতি সেকেন্ডে ১২০ ফ্রেমে স্লো মোশন ভিডিও করার সুবিধা ছাড়াও ক্যামেরাটি ৪কে ভিডিও রেকর্ডিংও সমর্থন করে। ওয়াইড অ্যাঙ্গেলে অনন্য সব সেলফি তোলার জন্য ১৬ মেগাপিক্সেলের (এফ/২.০) পাঞ্চ হোল ক্যামেরায় থাকছে অপোর উন্নত এআই বিউটিফিকেশন, সিন সিলেকশন।

সিপিইউ

অপো এ৯২ স্মার্টফোনে থাকছে কোয়ালকমের ১১ ন্যানোমিটারের স্নাপড্রাগন ৬৬৫ চিপসেট এবং 8 গিগাবাইট এলপিডিডিআর৪এক্স র‌্যামের সাথে অক্টাকোর জিপিইউ যেকোনো কাজে দেবে সর্বোচ্চ ২.০ গিগাহার্টজ গতি। ফোনটিতে একই সাথে একাধিক অ্যাপ এবং গেম খেলা যাবে কোনো ল্যাগ ছাড়াই। ফোনটিতে আছে বিশাল ১২৮ গিগাবাইট ইউএফএস ২.১ ইন্টারনাল স্টোরেজ, যা অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করতে বা দ্রুত ফাইল শেয়ারিংয়ে সহায়তা করবে।

ব্যাটারি

অপো এ৯২ এ রয়েছে ৫,০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি, যা একবার ফুল চার্জ দিয়ে অনায়াসে একদিন ব্যবহার করা যাবে। নিয়মিত ভিডিও কলিং কিংবা অনলাইন মিটিংয়ের ক্ষেত্রে এই ফোনটি দেবে সেরা ব্যাটারি ব্যাকআপ। কম সময়ে ফুল চার্জ দেওয়ার জন্য আছে ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

দাম

দেশের বাজারে স্মার্টফোনটি কেনা যাবে ২২,৯৯০ টাকায়। পাওয়া যাবে অরোরা পার্পল ও টোয়াইলাইট ব্ল্যাক রঙে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

ডিলিট হওয়া ফোন নাম্বার ফিরে পাবেন যেভাবে

প্রযুক্তি ডেস্ক:

প্রয়োজনীয় ফোন নাম্বার সংরক্ষণে গুগল কনট্যাক্ট বেশ জনপ্রিয়। স্মার্টফোনে জিমেইল লগইন করলেই গুগল কনট্যাক্ট থেকে ফোনবুকে চলে আসে সংরক্ষণ করা নাম্বারগুলো।

কোন কারণে গুগল কনট্যাক্ট থেকে যদি ফোন নাম্বার ডিলিট হয়ে যায় তাহলে তা আর ফিরে পাওয়ার উপায় ছিল না এতদিন। এবার সেই উপায় নিয়ে এলো গুগল কনট্যাক্ট।

এই ফিচারের সাহায্যে সহজেই ডিলিট হওয়া কন্ট্যাক্টস রিস্টোর করা যাবে।

গুগল কনট্যাক্টের এই ফিচার অনেকটা রিসাইকেল বিনের মতো। সে জন্য এর নাম দেওয়া হয়েছে ট্রাস। যা গুগল কনট্যাক্টে নতুন ট্যাব হিসেবে যুক্ত হচ্ছে।

যে সব ফোন নাম্বার ডিলিট হয়ে যাবে সেই সব নাম্বার ট্রাসে পাওয়া যাবে। নাম্বারটি অ্যাপ নাকি ওয়েবসাইট থেকে ডিলিট হয়েছিল তাও জানা যাবে এখানে।

ডিলিট হওয়া নাম্বার ৩০ দিনের মধ্যে রিকভার করা যাবে। যেখানে ব্যবহারকারীর কাছে দুটি অপশন থাকবে Delete Forever বা Recover। এর মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে হবে।

গুগল জানিয়েছে, এই ফিচার প্রথমে গুগল কনট্যাক্টের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। কিছুদিনের মধ্যে একটি জি-সুইট ব্যবহারকারী এবং ব্যক্তিগত গুগল অ্যাকাউন্টে পাওয়া যাবে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

বিল গেটস, ওবামাসহ প্রভাবশালীদের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, মাইক্রোসফটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, টেসলার সিইও ইলন মাস্ক, অ্যামাজন সিইও জেফ বেজোসসহ একাধিক প্রভাবশালী ব্যক্তিদের টুইটার অ্যাকউন্ট হ্যাক হয়েছে। হ্যাকাররা এই সকল অ্যাকাউন্ট নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বিটকয়েন এর বিভিন্ন ভুয়া পোস্ট টুইট করেছে।

বিবিসি জানিয়েছে, ইলন মাস্কের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে যে ভুয়া টুইট ছড়িয়েছে তাতে লেখা হয়েছে, আমার সব টুইটার ফলোয়ারদের বিটকয়েন দেব। আপনি আমাকে ০.১ বিটিসি দিন পরিবর্তে আমি তা দ্বিগুণ করে ০.২ বিটিসি ফেরত দেব।

মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস এক টুইট বার্তায় বলেন, আমাকে বলা হচ্ছিল তুমি ১ হাজার ডলার দিলে তোমাকে এর বিনিময়ে ২ হাজার ডলার দেওয়া হবে। হ্যাক হওয়া অ্যাকাউন্টগুলোতে বিটকয়েন দেওয়ার প্রলোভন দেখানো হয়েছে।

টুইটার জানিয়েছে, কোন ভাবে প্রভাবশালীদের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে। বিষয়টা গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। খুব দ্রুত এই ত্রুটির সমাধান করা হবে।

সিএনএন বলছে, নিরাপত্তা ত্রুটির কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে। অনেকের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে বিটকয়েন লেনদেনের ভুয়া প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। বিল গেটস, জেফ বেজোসের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকেও বিটকয়েন দ্বিগুণ করে দেওয়ার প্রস্তাব এসেছে।

হাজার ডলার বিটকয়েন দিলে ৩০ মিনিটের মধ্যে তার দ্বিগুণের বেশি ফিরিয়ে দেওয়া হবে এমন প্রস্তাব দিয়ে টুইটার পোস্ট ছড়িয়েছে অ্যাপল, মাইক্রোসফটের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকেও।

এই ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন টুইটারের প্রধান নির্বাহী জ্যাক ডোরসে। বুধবার রাতে এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, এটা টুইটারের জন্য একটি খারাপ দিন। এমন ঘটনার জন্য আমরা সবাই বিব্রত।

তিনি আরও বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত ও অ্যাকাউন্ট সুরক্ষার বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নেওয়া হবে। প্রকৃতপক্ষে কি ঘটেছে সে বিষয়টি পরিষ্কারভাবে জানা গেলে সবকিছু জানানো হবে বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি।

সাইবার নিরাপত্তা সংস্থা সোশ্যাল প্রুফ সিকিউরিটি ফার্মের বিশেষজ্ঞ র‍্যাচেল টোবাক বলেছেন, হ্যাকাররা কোনওভাবে বিশিষ্ট ব্যক্তিদের টুইটার অ্যাকাউন্টের অ্যাকসেস পেয়ে গেছে। সেখান থেকেই ভুয়া টুইট ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। এই টুইটগুলোর বেশিরভাগই মুছে দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতির দিকে নজর রাখছে সাইবার বিশেষজ্ঞরা।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

অনলাইন মিটিংয়ে খরচ ৫৭ লাখ, ব্যাখ্যা চাইলেন মন্ত্রী

করোনাকালে অনলাইনে মিটিং (জুম মিটিং) করে ৫৭ লাখ টাকা বাগিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি) এর বিরুদ্ধে। আর বাইরের একটি প্রতিষ্ঠান এই জুম মিটিংয়ের আয়োজন করায় নিয়েছে প্রায় ১১ লাখ টাকা। পাশাপাশি মিটিংয়ের খাবার বিল দেখানো হয়েছে ৪ লাখ ৩২ হাজার টাকা। এছাড়া কলম, ফোল্ডার, প্যাড, ব্যাগ ইত্যাদি খরচ দেখিয়েও বিল করা হয়েছে।

গত শনিবার (১১ জুলাই) দেশের একটি ইংরেজি দৈনিক এসব তথ্য তুলে ধরে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

ওই প্রতিবেদন প্রসঙ্গে আজ সোমবার (১৩ জুলাই) দুপুরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা হয় পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের। মন্ত্রীর দাবি, এসব তথ্য সঠিক নয়।

সাংবাদিকদের পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আমি এর মধ্যে আইএমইডি সচিব আবুল মনসুর মো. ফয়জুল্লাহর সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি জানিয়েছেন, করোনা শুরু হওয়ার আগের মিটিংয়ের জন্য তারা এই বিল পরিশোধ করেছেন। মানে, যখন মানুষ মিটিংয়ে উপস্থিত হয়ে মিটিং করতো, সেটা বিবেচনায় পেমেন্ট করেছে। করোনা শুরু হওয়ার পরে দু-একটা মিটিং করেছে, যারা উপস্থিত ছিল শুধু তাদেরকে পেমেন্ট করেছে। যারা ঘরে থেকে মিটিং করেছে, তাদেরকে বিল দেয় নাই। ওই সময়ের পেমেন্ট করা হয়েছে এবং এগুলোর জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনও আছে। এটা আমাকে সচিব জানিয়েছেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী আরও বলেন, যে কয়েকটা পেমেন্ট হয়েছে, সব করোনার আগে। আর করোনার পরে কিছু পেমেন্ট হয়েছে, সেটার বিস্তারিত রিপোর্ট আমাকে জানাবে। আমি তারপরেও সচিবের কাছ থেকে লিখিত রিপোর্ট চেয়েছি।

উল্লেখ্য, জুম মিটিংয়ের ওয়েবসাইট অনুযায়ী, জুম মিটিংয়ে ১০০ ব্যক্তি অংশ নিতে পারবেন, এমন প্যাকেজে ১ মাসে খরচ হবে ১৪ দশমিক ৯৯ ডলার। আর ক্ষুদ্র ও মাঝারি মানের ব্যবসা মিটিংয়ের জন্য এক মাসে ১৯ দশমিক ৯৯ ডলার খরচ। তাতে ৩০০ ব্যক্তি অংশ নিতে পারবেন। এছাড়াও আরও বেশ কিছু প্যাকেজ আছে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

উবার থেকে গাড়ি ভাড়া করবেন যেভাবে

একটি গাড়ি কয়েক ঘণ্টার জন্য ভাড়া করে ব্যবহারের সুবিধা দিচ্ছে উবার। ‘উবার রেন্টালস’ সেবার মাধ্যমে যাত্রীরা গাড়ি ভাড়া করতে পারছেন।

এই সেবা পেতে যাত্রীদের ২ ঘণ্টা ও ২০ কিলোমিটার দূরত্বের জন্য ৮৯৯ টাকা দিতে হবে। এছাড়াও রয়েছে বিভিন্ন প্যাকেজ। যেখান থেকে সর্বোচ্চ ১০ ঘণ্টা পর্যন্ত রাইড সিলেক্ট করার সুযোগ থাকছে।

যেসব যাত্রীরা অনেক ব্যস্ত থাকেন এবং স্বল্প সময়ের মধ্যে অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ সেরে ফেলতে চান তাদের জন্য এই সেবাটি অনেক উপকারে আসতে পারে। এখন থেকে তাদের একাধিক জায়গায় যাওয়া, কোনো ব্যবসায়িক মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করে একই গাড়িতে বাড়ি ফেরা ইত্যাদি কাজের জন্য বার বার রাইড বুক দিতে হবে না, একটি গাড়ি ভাড়া করেই তারা সব কাজ শেষ করতে পারবেন।

এই নতুন সেবা নিয়ে উবারের বাংলাদেশ ও পূর্ব ভারতের প্রধান রাতুল ঘোষ বলেন, যেহেতু ঢাকায় জনজীবন আবার স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে তাই বদলে যাওয়া এই পরিস্থিতিতে গ্রাহকদের চাহিদাও আগের চেয়ে বদলেছে। যার মধ্যে একটি হলো একটি উবারের গাড়ি আরও বেশি সময়ের জন্য কাছে রাখা। সেজন্য উবার রেন্টালস এমন একটি সেবা যা যাত্রীদের সাশ্রয়ী ভাড়ায় একটি গাড়ি কয়েক ঘণ্টার জন্য ভাড়া করা এবং একাধিক জায়গায় যাওয়ার জন্য সেই গাড়িটি ব্যবহার করার সুবিধা দিবে। উবার রেন্টালস-এর সব গাড়িই স্বাস্থ্য নির্দেশিকা মেনে চলবে এবং সম্ভাব্য সর্বোচ্চ সুরক্ষা নিশ্চিত করবে। আর চালকদের জন্য এটি আমাদের প্ল্যাটফর্মে উপার্জনের আরও একটি সুযোগ।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে উবার সর্বোচ্চ সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য অনেকগুলো কার্যকরী পদক্ষেপ নিয়েছে। উবার কর্তৃপক্ষ চালকদের জন্য মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবান ও টিস্যু পেপার সম্বলিত সুরক্ষা কিট বিতরণ করছে এবং যাত্রীদের সচেতন করতে প্রতিটি গাড়িতে ‘রাইডার সেফটি’ প্ল্যাকার্ড লাগিয়েছে।

উবার রেন্টালস বুক করা অন্যান্য উবার ট্রিপের মতোই সহজ। ‘উবার রেন্টালস’ অপশনটি না পেলে উবার অ্যাপ আপডেট করতে হবে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

এক হচ্ছে মেসেঞ্জার ও হোয়াটসঅ্যাপ!

মেসেঞ্জার ও হোয়াটসঅ্যাপকে এক করার উদ্দেশ্যে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছে ফেসবুক। পরীক্ষায় সফল হলে খুব শিগগিরই মেসেঞ্জার ও হোয়াটসঅ্যাপ এক করে দেয়া হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আলাদা আলাদা অ্যাপ ব্যবহার করলেও মেসেঞ্জার থেকে হোয়াটসঅ্যাপে কিংবা হোয়াটসঅ্যাপ থেকে মেসেঞ্জারে বার্তা পাঠানো যাবে। তার মানে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থাকলে হোয়াটসঅ্যাপ ডাউনলোড না করেও আপনার হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারী বন্ধুদের বার্তা পাঠাতে পারবেন।

মেসেঞ্জারের লুকানো কোড থেকে এই তথ্য আবিষ্কার করেছে ওয়াবেটাইনফো নামের একটি ওয়েবসাইট।

ফেসবুক যেহেতু এ নিয়ে কোন ঘোষণা দেয়নি তাই এর বাস্তবায়ন কবে হবে সে ব্যাপারে কোন নিশ্চয়তা পাওয়া যায়নি। এটি একটি খুব জটিল প্রক্রিয়া তাই এর বাস্তবায়নের জন্য সময় প্রয়োজন হতে পারে। তবে গত বছর ফেসবুক কর্তৃপক্ষ তাদের অধিনস্ত মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইন্সটাগ্রামের মেসেজিং সেবা এক করে ফেলার ঘোষণা দিয়েছিল।

ফেসবুক চলতি বছরের এপ্রিলে মেসেঞ্জার রুম নামের একটি অ্যাপ বাজারে ছাড়ে যার মাধ্যমে সর্বোচ্চ ৫০ জন ব্যবহারকারী নিয়ে আপনি ভিডিও কল পরিচালনা করতে পারবেন। এই কলে আপনি মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইন্সটাগ্রামের ব্যবহারকারীদের অন্তর্ভুক্ত করতে পারবেন।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরগুলোতে বলা হচ্ছে, ফেসবুক তাদের পরবর্তী পদক্ষেপের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। মেসেঞ্জারের কোড থেকে বোঝা যায় মেসেঞ্জার অ্যাপটির ভেতরে একটা ডাটাবেজ তৈরি হচ্ছে যার মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপের তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

পোস্টমেটস কিনছে উবার

গ্রাহককে কেনার প্রস্তাব দিয়েছিল উবার। সে প্রস্তাবে সাড়া দেয়নি গ্রাবহাব। এরই মধ্যে ফুড ডেলিভারি ব্যবসার প্রসার করতে আরেকটি কোম্পানিকে কেনার প্রস্তাব করে সফলতার মুখ দেখছে উবার।

উবার তাদের উবার ইটস খাবার ডেলিভারি সেবায় নতুন মাত্রা যোগ করছে। ২.৬৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে কিনছে আরেক খাবার ডেলিভারি কোম্পনি পোস্টমেটস।

উবার প্রধান দারা খোসরোশাহী বলেন, উবার ও পোস্টমেটস শুধু খাবার ডেলিভারি নয়, কোভিড-১৯ এর মত সংকটে স্থানীয় বাণিজ্য এবং সমাজের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

২০২১ এর প্রথম দিকেই উবার ও পোস্টমেটস একসাথে তাদের বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ বাজারে অন্যান্য ডেলিভারি কোম্পানির তুলনায় পোস্টমেটস তুলনামূলক ছোট কোম্পানি হলেও তারা এ সেবার পথপ্রদর্শক বলা চলে। গত মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রে খাবার ডেলিভারি খাতের আয়ের ৮% অর্জন করে পোস্টমেটস। একই খাতে ৪৪% আয় অর্জন করে প্রথম স্থানে আছে ডুরড্যাশ নামের আরেকটি ডেলিভারি কোম্পানি।

পোস্টমেটস যুক্তরাষ্ট্রের কয়েক হাজার শহরে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। লস অ্যাঞ্জেলস, লাস ভেগাস, সান দিয়েগো এবং ফিনিক্স এর মত ব্যস্ত শহরে রয়েছে তাদের বেশ জনপ্রিয়তা। পুরো যুক্তরাষ্ট্রে তাদের ১০ মিলিয়নের বেশি সক্রিয় গ্রাহক রয়েছে।

উবার বেশ লম্বা সময় ধরে বিশ্বে তাদের রাইড শেয়ারিং সেবা দিয়ে বাজার নেতৃত্ব দিয়ে আসছে। সম্প্রতি তারা রাইড শেয়ারিং ছাড়াও অন্যান্য সেবা বিশেষ করে খাবার ডেলিভারি খাতে নিজেদের প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

স্বাভাবিক সময়ে উবারের রাইডশেয়ারিং ব্যবসা চাঙ্গা থাকলেও বিশ্ব জুড়ে চলমান লকডাউনে এ ব্যবসায় ভাটা চলছে। সে ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার জন্যই উবার এখন মনোযোগ দিচ্ছে উবার ইটস এর দিকে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

কুরবানির গরু নিয়ে ‘ডিজিটাল হাট’

আসছে ঈদুল আযহায় খামারি ও ক্রেতাদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তার কথা চিন্তায় রেখে কুরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য ডিজিটাল হাটের ব্যবস্থা করেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ।

এটিই হবে সরকারি উদ্যোগে দেশের সবচেয়ে বড় “কুরবানির পশুর ডিজিটাল হাট”। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্পের “স্টার্টআপ বাংলাদেশ” ব্যানারে এই উদ্যোগটি নেয়া হয়েছে।

এই হাটে ক্রেতারা ঘরে বসেই গরুর ছবি ও ভিডিও দেখার ও লাইভ ওজন জানার সুযোগ পাবেন। একই সাথে তিনি গরু চাষী, খামারি বা ব্যাপারিদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করার সুযোগ পাবেন। এরপর নির্দিষ্ট স্থান থেকে অথবা হোম ডেলিভারির ভিত্তিতে অর্থের বিনিময়ে গরু সংগ্রহ করতে পারবেন।

দেশের সর্ববৃহৎ এই ডিজিটাল হাটের জন্য সারাদেশ থেকে গরু- ছাগলের চাষী, খামারের মালিক ও সাধারণ পশু ব্যবসায়ীদের নিবন্ধন কার্যক্রম ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে। এই পেশা সব মানুষ https://foodfornation.gov.bd/qurbani2020 ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিনামূল্যে নিবন্ধন করার সুযোগ পাবেন।

নিবন্ধনের পর নিজস্ব প্যানেল থেকে পশুর ছবি, ভিডিও ও অন্যান্য তথ্য আপলোড করতে হবে। এই সকল ছবি ও তথ্য ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকার তার নিজ খরচে প্রচার করবে। ফলে ক্রেতারা সহজেই তাদের কুরবানির জন্য প্রয়োজনীয় পশু পছন্দের সুযোগ পাবেন এবং বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ করে ডেলিভারি নিতে পারবেন।

এই প্রসঙ্গে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক বলেন, এটি কুরবানির পশুর জন্য দেশের সবচেয়ে বড় ম্যাচ মেকিং ডিজিটাল হাট হতে যাচ্ছে। খামারি ও চাষীদের অর্থনৈতিক ক্ষতি ও সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য আমরা এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। আমি সারাদেশের খামারি ও চাষীদের অনুরোধ জানাচ্ছি, আপনারা আপনাদের পশুর তথ্য নিয়ে এই প্লাটফর্মে আসুন। আমরা দেশের সকলের স্বাস্থ্য সুরক্ষা অটুট রেখেই আমাদের অর্থনৈতিক ও ধর্মীয় কর্মকান্ডগুলো চালু রাখতে চাই।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

ফেসবুকের বিকল্প ‘এলিমেন্টস’ অ্যাপ চালু ভারতে

লাদাখে গালওয়ান উপত্যকায় যুদ্ধ যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার পর টিকটকসহ ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে ভারত। এরপর দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আত্মনির্ভরশীল হতে এসব বিদেশি অ্যাপের বিকল্প বের করার কথা বলেন। বিভিন্ন সফটওয়্যার কোম্পানিকে নতুন নতুন অ্যাপ বানানোর আহ্বানও জানান। এবার সেদিকেই একধাপ এগোল ভারত। ‘এলিমেন্টস’ নামে একটি অ্যাপের উদ্বোধন করা হয়েছে দেশটিতে, যা ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামকে টেক্কা দেবে।

রোববার এক ভার্চুয়াল সভায় দেশটির উপ-রাষ্ট্রপতি ভেংকাইয়া নাইডু এই দেশীয় অ্যাপের উদ্বোধন করেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিনিদের খবরে বলা হয়েছে, এটিই ভারতের প্রথম সম্পূর্ণ দেশীয় ‘সোশ্যাল মিডিয়া সুপার অ্যাপ’। এক হাজারেরও বেশি ইঞ্জিনিয়ার মিলে এই অ্যাপটি তৈরি করেছেন। তাদের প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়ে এদিন নায়ডু বলেন, ‘অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে জানাচ্ছি যে, এক হাজারেরও বেশি ইঞ্জিনিয়ার, যারা কি না আবার শ্রী শ্রী রবিশংকর আর্ট অব লিভিং ফাউন্ডেশনের ভলেন্টিয়ারও, তারাই খাঁটি দেশি অ্যাপটি তৈরি করেছেন। এর নাম এলিমেন্টস। মোট আটটি ভারতীয় ভাষায় অ্যাপটি ব্যবহার করা যাবে।’

গুগল প্লে স্টোর এব অ্যাপেল স্টোর থেকে লাউনলোড করে নিতে হবে। ইতিমধ্যেই এক লাখের বেশি মানুষ অ্যাপটি লাউনলোড করেছেন।

এই অ্যাপের মাধ্যমেও ফেসবুকের মতোই বন্ধু-পরিবার-পরিজনদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা যাবে। নানা আকর্ষণীয় ফিচারও আছে। ক্যামেরায় থাকছে ইন-বিল্ড ফিল্টার ও অগমেন্টেড রিয়ালিটি ফিগার। চ্যাটিংও থাকছে। মিলবে খবরের সমস্ত আপডেট। ইউজারদের তথ্য যেন সুরক্ষিত থাকে সেজন্য বিশেষ নজর দেয়া হয়েছে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//