সুপার ওভারের লড়াইয়ে খুলনাকে হারাল চিটাগং

26
khela

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিনিয়োগ বার্তা:
টানা তিন ম্যাচে হারের পর ভেঙে পড়াটাই স্বাভাবিক একটা দলের জন্য। আজকে চিটাগাং ভাইকিংসের বিপক্ষে হারলে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার পথটা অনেক ক্ষীণ হয়ে যেত খুলনা টাইটানসের।

টানা হারের কোনও কারণই খুঁজে পাচ্ছিল না টাইটানস কোচ মাহেলা জয়াবর্ধনে। এমনটাই জানিয়েছিলেন তৃতীয় ম্যাচে হারের পর। এত ভালো একটা দল গড়েও এমন ব্যর্থতা মেনে নেয়া কঠিনই বটে।

টস জিতে চিটাগং ভাইকিংস অধিনায়ক মুশফিক আগে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রান তাড়া করার লক্ষ্যে।

আগে ব্যাট করে ডেভিড মালানের ৪৫ রান টাইটানস দলনেতা মাহমুদুল্লাহ’র ৩৩ রানে ভর করে ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেটে সংগ্রহ করে ১৫১ রান।

আরও পড়তে পারেন :  আজ মুখোমুখি ঢাকা-সিলেট

ভাইকিংসের হয়ে ২ উইকেট নেন সানজামুল ইসলাম। ১টি করে উইকেট নেন রবি ফ্রাইলিংক, নাঈম হাসান, খালেদ আহমেদ আর আবু জায়েদ।

খুলনার দেয়া ১৫১ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে খুলনার বোলারদের নিয়মিত বিরতিতে উইকেট দিতে থাকে ভাইকিংসের ব্যাটসম্যানরা। দুই ওপেনারের দ্রুত বিদায়ের পর মোহাম্মদ আশরাফুলের বদলে দলে জায়গা পাওয়া ইয়াসির আলী খেলেন ৩৪ বলে ৪১ রানের ইনিংস। মুশফিকের ব্যাটে আসে ৩৪ রান।

এরপর সিকান্দার রাজা, মোসাদ্দেক হোসেনরা দলের হাল ধরতে ব্যর্থ হওয়ার পর নাঈম হোসেনকে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরেন রবি ফ্রাইলিংক।

আরও পড়তে পারেন :  রোমাঞ্চকর জয় কুমিল্লার

শেষ ওভারে যখন ১৯ রান দরকার তখন ওভারের দ্বিতীয়, চতুর্থ আর পঞ্চম বলে তিন ছয়ে ম্যাচ সমতায় নিয়ে আসেন ফ্রাইলিংক।

শেষ বলের নাটকীয়তায় ১ রান লাগে চিটাগং ভাইকিংসের কিন্তু, ফ্রাইলিংক রান আউট হয়ে যাওয়ায় ম্যাচ গড়ায় সুপার ওভারে।

তাতে প্রথমবারের মতো সুপার ওভারের স্বাদ পেল বিপিএল।

সুপার ওভারে আগে ব্যাট করতে নেমে চিটাগং ভাইকিংস করে ১১ রান।

জবাবে সুপার ওভারে লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ব্যর্থ হয় খুলনা। ১২ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৯ রান পর্যন্ত তুলতে পারে তারা।

এই ম্যাচ দিয়ে টানা চতুর্থ পরাজয়ে পয়েন্ট তালিকায় তলানিতেই থেকে গেল খুলনা টাইটানস।

আরও পড়তে পারেন :  রংপুরের টার্গেট ১৯৫

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

 

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here