সাংবাদিকতায় শাহ আলমগীরের বর্ণাঢ্য জীবন

260
alamgir

শাহ আলমগীর
প্রথিতযশা সাংবাদিক, প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশের (পিআইবি) মহাপরিচালক শাহ আলমগীর মারা গেছেন। রেখে গেছেন সাংবাদিকতায় তার বর্ণাঢ্য জীবন। তিনি প্রেস ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশের (পিআইবি) মহাপরিচালক হিসাবে (২০১৩, ১১ জুলাই) নির্বাচিত হয়েছেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক দুলাল চন্দ্র বিশ্বাসের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন তিনি। তিনি এশিয়ান টিভির সিইও, বাংলাদেশ শিশু কল্যাণ পরিষদের সভাপতি ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি।

পরিবার
শাহ আলমগীরের স্ত্রী ফৌজিয়া বেগম একটি ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিতে কাজ করেন। ছেলে আশিকুল আলম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএ এর ছাত্র। আর ‘এ’ লেভেলের ফার্স্ট পার্ট পরীক্ষা দিয়েছেন মেয়ে অর্চি অনন্যা।

জন্ম এবং শিক্ষা
শাহ আলমগীরের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নবীনগরে। তবে বাবার চাকরির সুবাদে পড়াশোনার একটি অংশ কাটে বৃহত্তর ময়মনসিংহে। গৌরীপুর কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট পাস করে চলে আসেন ঢাকায়। ভর্তি হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। বাংলা সাহিত্যে অনার্স ও মাস্টার্স করেন। সাংবাদিকতায় ডিপ্লোমা করেছেন মস্কো ইনস্টিটিউট অব জার্নালিজম থেকে।

কর্ম জীবন
শাহ আলমগীরের সাংবাদিকতা শুরু অবজার্ভার গ্রুপের ‘কিশোর বাংলা’ পত্রিকা দিয়ে। এরপর কাজ করেন দৈনিক জনতা, বাংলার বাণী ও আজাদে। প্রথম আলো প্রকাশের সময় তিনি যুগ্ম বার্তা সম্পাদক হিসেবে যোগ দেন। এরপর চলে যান টেলিভিশন মিডিয়ায়। তিনি ছিলেন চ্যানেল আইয়ের প্রধান বার্তা সম্পাদক। কাজ করেছেন একুশে টেলিভিশনে, হেড অব নিউজ হিসেবে। পরিচালক (বার্তা) ছিলেন যমুনা টেলিভিশনে। মাছরাঙায় ছিলেন বার্তাপ্রধান। সবশেষ এশিয়ান টিভিতে ছিলেন প্রধান নির্বাহী ও প্রধান সম্পাদক।

পেশাজীবী সাংবাদিক হিসেবে শাহ আলমগীর দীর্ঘদিন যাবত দৈনিক আজাদ, দৈনিক জনতা, দৈনিক বাংলার বাণী, দৈনিক সংবাদ, দৈনিক প্রথম আলো, চ্যানেল আই টিভি, যমুনা টিভি, মাছরাঙ্গা টিভি’সহ অনেক প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

সাংবাদিক ইউনিয়নের সঙ্গে শাহ আলমগীর সক্রিয়ভাবে জড়িয়ে আছেন। তিনি ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের দু-দুবার বিপুল ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হন। সাংবাদিক মহলে তিনি ভদ্র, নম্র ও বিনয়ী মানুষ হিসেবে পরিচিত।

পুরস্কার ও সম্মাননা
কবি আবু জাফর ওবায়দুল্লাহ সাহিত্য পুরস্কার, ২০০৬
চন্দ্রাবতী স্বর্ণপদক ২০০৫
রোটারি ঢাকা সাউথ ভোকেশনাল এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০০৪
কুমিল্লা যুব সমিতি এওয়ার্ড ২০০৪
রোটারি ইন্টারন্যাশনাল লাইফ অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়্যার্ড-২০১৬

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here