সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ব্যাংক খোলা থাকবে

67

সীমিত আকারে ব্যাংকিং ব্যবস্থা চালু রাখার নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

নতুন সময় অনুযায়ী সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত নগদ জমা ও উত্তোলন করা যাবে। লেনদেন–পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম শেষ করার জন্য ব্যাংক খোলা থাকবে বেলা দেড়টা পর্যন্ত।

মঙ্গলবার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, শুধু নগদ জমা ও উত্তোলনের জন্য অনলাইন সুবিধা থাকা ব্যাংকগুলো গ্রাহকদের লেনদেনের সার্বিক সুবিধা নিশ্চিত করে শাখাগুলোর মধ্যে দূরত্ব বিবেচনায় নিয়ে প্রয়োজনীয়সংখ্যক শাখা খোলা রাখা যাবে। অনলাইন সুবিধা ছাড়া ব্যাংকের শাখাগুলো শুধু নগদ জমা ও উত্তোলনের জন্য খোলা রাখা যাবে। শুধু জরুরি বৈদেশিক লেনদেনের জন্য এডি শাখাগুলো খোলা রাখা যাবে। এটিএম ও কার্ডের মাধ্যমে লেনদেন চালু রাখার সুবিধার্থে এটিএম বুথগুলোয় পর্যাপ্ত নোট সরবরাহ রাখতে হবে এবং সার্বক্ষণিক চালু রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

আরও পড়তে পারেন :  করোনা : ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের জন্য জরুরি তহবিল চায় ডিসিসিআই

করোনাভাইরাসের কারণে ব্যাংকগুলোয় নগদ উত্তোলন ছাড়া অন্য সব ক্ষেত্রে চাপ নেই বললেই চলে। এ কারণে ব্যাংকগুলো শুরু থেকেই সময়সীমা পরিবর্তনের দাবি জানিয়ে আসছিল। ব্যাংকগুলো নিজ উদ্যোগে কর্মী কমিয়েও এনেছে। বেশির ভাগ ব্যাংকেই কর্মীদের দুই ভাগে ভাগ করে অফিস করতে বলা হয়েছে। এবার সীমিত আকারে ব্যাংকিং ব্যবস্থা চালু রাখার নির্দেশনা দিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

করোনাভাইরাসের কারণে ২৬ মার্চ থেকে আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। এর মধ্য ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি থাকবে। এর আগে ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের ও পরে ২৭ ও ২৮ মার্চের সাপ্তাহিক ছুটিও যোগ হবে। এ ছাড়া ৩ ও ৪ এপ্রিল সাপ্তাহিক ছুটি এ ছুটির সঙ্গে যোগ হবে।

আরও পড়তে পারেন :  করোনার ধাক্কায় ১৫ মাসে সর্বনিম্ন রেমিট্যান্স

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

 

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here