শিক্ষার্থীদের মালামাল চুরি: সেই ছাত্রাবাস মালিক রিমান্ডে

রাজধানীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫০ শিক্ষার্থী তিন মাসের ভাড়া না দেওয়ায় তাদের শিক্ষা সনদ ও মালামাল চুরির মামলায় পূর্ব রাজাবাজারে আলিফ নামের একটি ছাত্রাবাসের মালিক খোরশেদের এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শুক্রবার ঢাকা মহানগর হাকিম আদালত এই আদেশ দেন। এর আগে কলাবাগান থানার তদন্ত কর্মকর্তা ৩ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন।

নিউমার্কেট জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার আবুল হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করলে শিক্ষার্থীদের মালামাল কী করেছে জানা যাবে ।

উল্লেখ্য, রাজধানীর গ্রিন রোডের বেসরকারি সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির ৫০ শিক্ষার্থী রাজাবাজারে আলিফ নামের একটি ছাত্রাবাসে ভাড়া থাকতেন। করোনা পরিস্থিতিতে গত মার্চে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ হলে সব শিক্ষার্থী তাদের কক্ষে তালা লাগিয়ে বাড়িতে চলে যান। কিছুদিন আগে জানতে পারেন ছাত্রাবাস মালিক খোরশেদ আলম গত এপ্রিল থেকে মে পর্যন্ত তিন মাসের ভাড়া না পেয়ে তাদের কক্ষ ভেঙে চেয়ার টেবিল, বই-খাতা, আসবাবপত্রসহ মালামাল সরিয়ে ফেলেছেন।

গত বুধবার সকালে ৫০ শিক্ষার্থী সবাই ঢাকায় আসেন। তারা খোরশেদ আলমকে ফোন করলে তিনি এসে বলেন, ‘বকেয়া টাকা দিলে মালামাল দেওয়া হবে’। শিক্ষার্থীদের চাপে বুধবার রাতে যেখানে মালামাল রাখা হয়েছে, সেখানে তাদের নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু শিক্ষার্থীরা দেখতে পান, তাদের প্রত্যেকের সুটকেসের তালা ভাঙা। লেপ–তোশক ছাড়া, কোনো মালপত্রই নেই।

ওই বুধবার রাতে শিক্ষার্থীদের মালামাল গায়েব করার ঘটনায় সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী মো. সোহান বাদী হয়ে কলাবাগান থানায় ছাত্রাবাসের মালিক খোরশেদ আলমের বিরুদ্ধে চুরির মামলা করেন। পরে গতকাল বৃহস্পতিবার ছাত্রাবাসের মালিক খোরশেদকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *