শার্শায় যুবককে কুপিয়ে হত্যা: আটক ৬

119
oporadh

মোঃ আনিছুর রহমান. বেনাপোল প্রতিনিধি, বিনিয়োগ বার্তা:

শার্শার কাজিরবেড় গ্রামে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে খুন হওয়া জাহিদ নামে এক যুবক যুবকের বস্তা বন্দী লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে তাকে কুপিয়ে সারা শরীর ক্ষত বিক্ষত করে হত্যা করেছে বিউটি নামে এক নাগিনীর সহযোগিরা।
নিহত যুবক বেনাপোলের পোড়াবাড়ি নারানপুর গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে। সে বেনাপোলে সেজুতি নামে একটি সিএন্ডএফ অফিসের কর্মচারী।
স্থানীয়রা জানান জাহিদ বিদেশে যাওয়ার জন্য ঝড়– দালালের স্ত্রী বিউটি খাতুনকে বেশ আগে ৪ লাখ টাকা দেয়। কিন্তু দির্ঘদিন অতিবাহিত হলে ও তাকে বিদেশ পাঠাতে পারে নাই। পরে টাকা চাইলে আজ কাল করে দির্ঘ সময় ক্ষেপন করে। অবশেষে বুধবার টাকা দেওয়ার কথা বলে জাহিদকে বিউটি তার বাসায় ডেকে নেয়। এবং পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে সে যশোর থেকে বাসায় ভাড়াটে ৪ জন খুনী চক্রকে এনে জাহিদকে বাথ রুমের ভিতর ধারালো অস্ত্র দ্বারা সারা শরীর খুচিয়ে খুচিয়ে হত্যা করে। জাহিদের মৃত নিশ্চিত হওয়ার পর বিউটি বস্তা বন্দি করে লাশ পাশে কলাবাগানের ভিতর ফেলে দেয়।
জাহিদের বাড়ির লোকজন জাহিদকে খোজাখুজির এক পর্যায় বিউটির বাড়ি এসে জানতে চাইলে তারা লাইট বন্ধ করে দেয়। লাইট বন্ধ করে দেওয়ায় সন্দেহ হলে তারা শার্শা থানা পুলিশকে অবহিত করে। পরে পুলিশ এসে বিউটির স্বীকারোক্তি অনুযায়ী কলাবাগান থেকে লাশ উদ্ধার করে।
অপরাধে জড়িত থাকার অপরাধে পুলিশ ৬ জনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলো ঝড়ু ও তার স্ত্রী বিউটি খাতুন,মেয়ে সুমী খাতুন, মোক্তার আলীর স্ত্রী রহিমা খাতুন, খালিদের স্ত্রী ফেরদৌসী, ও তার ছেলে আলামীন।
শার্শা থানা অফিসার ইনচার্জ এশ মশিউর রহমান বলেন আমরা প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছি বিউটির ইন্ধনে সিএন্ডএফ কর্মচারী জাহিদ খুন হয়েছে। ইতি মধ্যে ৬ জনকে আটক করেছি। বাকিদের আটকের চেষ্টা চলছে। লাশ ময়না তদন্তর জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন :  রাজশাহীতে পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলি যুবক নিহত

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here