রাতে ওষুধ আনতে গেলেন যুবক, সকালে মিলল গলাকাটা লাশ

37

রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় জাকির হোসেন (২১) নামে এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার রাতে উপজেলার কালীদাসখালী বাজারে তিনি ওষুধ আনতে যান। শনিবার সকাল ৯টার দিকে বাঘা থানার পুলিশ পদ্মার চরের কালীদাসখালী এলাকার এক মটরক্ষেতে জাকিরের মরদেহ পাওয়া যায়।

নিহত জাকির হোসেন কালীদাসখালী এলাকার আবদুল খালেক মোল্লার ছেলে।

নিহতের বাবা আবদুল খালেক মোল্লা বলেন, আমার ছেলে জাকির হোসেন শুক্রবার রাত ৯টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে পাশের কালীদাসখালী বাজারে ওষুধ আনতে যায়।

তার পর আর সে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। তাকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নিয়েও পাওয়া যায়নি।

আরও পড়তে পারেন :  লিগ্যাল এইডের আইনজীবী মনোনীত হলেন এডভোকেট মোঃ মনিরুজ্জামান রুবেল

সকালে কালীদাসখালী এলাকার এক মটরক্ষেতে তার মরদেহ পাওয়া যায়। সবজি চাষিরা মাঠে কাজ করতে যাওয়ার সময় মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে এলাকার মানুষকে জানান। পরে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে ছেলের মরদেহ চিনতে পারি।

পদ্মার মধ্যে চকরাজাপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আজিজুল আযম বলেন, শুনেছি কালীদাসখালী এলাকায় মটরক্ষেত থেকে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশকে বিষয়টি অবগত করা হয়েছে।

বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে এ হত্যার মূল কারণ উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়তে পারেন :  ‘ফলো আপ’ কার্যক্রম শুরু করবে দুদক

বিনিয়োগ বার্ত//এল//

 

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here