যুবলীগ নেতাকে ডেকে নিয়ে গুলি করে মারল রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা

54

রোহিঙ্গারা প্রতিনিয়ত বেপরোয়া হয়ে উঠছে। সম্পৃক্ত হচ্ছে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে। মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছে তাদের অপরাধ। রোহিঙ্গাদের মারমুখী আক্রমণ থেকে রেহাই মিলছে না কারোরই।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) রাত সাড়ে ১০টার দিকে রোহিঙ্গা ডাকাত সর্দার সেলিমের নেতৃত্বে অস্ত্রধারীরা কক্সবাজারের টেকনাফে ওমর ফারুক (৩০) নামে এক যুবলীগ নেতাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গুলি করে হত্যা করেছে।

নিহত ওমর ফারুক উপজেলার হ্নীলা ইউপির জাদিমোরা এলাকার মোনাফ কোম্পানির ছেলে ও হ্নীলা নয় নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগ ও জাদিমোরা এমআর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি।

স্থানীয়রা জানান, রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাড়ির সামনে ছিলেন ওমর ফারুক। এ সময় রোহিঙ্গা ডাকাত সর্দার সেলিমের নেতৃত্বে একদল অস্ত্রধারী ওমর ফারুককে তুলে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে তাকে পাহাড়ে নিয়ে গিয়ে গুলি করে হত্যা করে।

আরও পড়তে পারেন :  কিশোরগঞ্জে ট্রলার ডুবি: নারী-শিশুসহ নিহত ৩

খবর পেয়ে নিহতের ভাই আমির হামজা ও উসমানসহ স্বজনরা মরদেহ আনতে গেলে ডাকাতদল মরদেহ আনতে বাধা দেয়।

স্থানীয়রা আরও জানান, ডাকাত সর্দার সেলিম গংসহ অপরাপর প্রায় ৫/৬ জন রোহিঙ্গা ডাকাত একসঙ্গে বসে পাহাড়ের পাদদেশে মদপান করে। সেখানে যুবলীগ নেতা ওমর ফারুককে জোর করে নিয়ে যায়। রোহিঙ্গারা অতিরিক্ত মদ খেয়ে একপর্যায়ে ফারুকের সঙ্গে তর্কাতর্কিকে জড়িয়ে পড়ে। এরপর কোনো কিছুই বুঝার আগেই তাকে নির্মমভাবে হত্যা করে।

টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, এ রকম একটি ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন :  রাজধানীর বাজারে পঞ্চাশের কমে মিলছে না সবজি

এ বিষয়ে কক্সবাজার জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. ইকবাল হোসাইন জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার বা আর্থিক বিষয় নিয়ে বিরোধের জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here