যুগান্তকারী চার্জিং সুবিধা নিয়ে এলো রিয়েলমি ৭ প্রো

72

সাম্প্রতিক সময়ে স্মার্টফোন বাজারে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ব্র্যান্ড হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছে রিয়েলমি। গত দুই বছরে ব্র্যান্ডটি জয় করে নিয়েছে সাড়ে চার কোটিরও বেশি ক্রেতার আস্থা। চলতি বছরের শুরুতে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশে কার্যক্রম শুরু করে রিয়েলমি।

বাংলাদেশে যাত্রার শুরু থেকেই এর অসাধারণ পারফরম্যান্সের ট্রেন্ডি স্মার্টফোনগুলো নিয়ে আগ্রহ ও প্রত্যাশা তৈরি হয়েছে তরুণদের মধ্যে। সম্প্রতি দেশের বাজারে রিয়েলমির নতুন স্মার্টফোন রিয়েলমি ৭ প্রো অবমুক্ত করেছে। ৬৫ ওয়াটের সুপার ডার্ট চার্জ ফিচার নতুন এ স্মার্টফোনটি এখন পর্যন্ত দেশের সবচেয়ে দ্রুতগতির চার্জিং সল্যুশন সমৃদ্ধ ফোনে পরিণত করেছে। মিরর সিলভার ও মিরর ব্লু রঙে নতুন এ স্মার্টফোনটির বাজারমূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ২৭ হাজার ৯৯০ টাকা।

দীর্ঘক্ষণ স্মার্টফোন ব্যবহারে ৬৫ ওয়াটের সুপার ডার্ট চার্জ

স্মার্টফোনের বহুমাত্রিক ব্যবহার চিন্তা করলে, একবার ফুল চার্জে সারাদিন স্মার্টফোন ব্যবহারের সুবিধা ব্যবহারকারীর স্মার্টফোন ব্যবহারকে করবে স্বাচ্ছন্দ্যময়। রিয়েলমি’র নতুন ফোনে দীর্ঘক্ষণ অনলাইন গেম খেলা কিংবা এইচডি ভিডিও দেখার ক্ষেত্রে মিলবে সে স্বাচ্ছন্দ্য। মোবাইল বিনোদনকে দীর্ঘায়িত করতে রিয়েলমি ৭ প্রো’তে রয়েছে ৬৫ ওয়াটের সুপার ডার্ট চার্জ সল্যুশন। মাত্র ৩৪ মিনিটে ফোনটি সম্পূর্ণ চার্জ হবে, মাত্র ১২ মিনিটে চার্জ হবে ব্যাটারির ৫০ শতাংশ। শুধু তাই নয়, মাত্র ৩ মিনিটে ফোনটি ১৩ শতাংশ চার্জ হবে। ফলে ৩ রাউন্ড পাবজি খেলা যাবে, ২ ঘণ্টা ইনস্টাগ্রাম ব্রাউজ করা যাবে, ইউটিউব সার্ফ করা যাবে আড়াই ঘণ্টারও বেশি এবং ফোনটি স্ট্যান্ডবাই থাকবে চার দিন।

আরও পড়তে পারেন :  সব ভিডিওতেই বিজ্ঞাপন দেখাবে ইউটিউব

রিয়েলমি ৭ প্রো হচ্ছে দেশের সবচেয়ে দ্রুতগতির চার্জ হওয়া স্মার্টফোন। এ ফোনের ব্যবহারকারীরা যেকোনো মুহূর্তে খুব অল্প সময়ই তাদের ফোন চার্জ দিতে পারবেন। গেম খেলার সময়ও মাত্র ৩০ মিনিটে ফোনটির ৪৩ শতাংশ চার্জ হবে। চার্জ হওয়ার সময় অত্যাধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে ফোনের তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে থাকবে। পাশাপাশি অতিরিক্ত গরম হওয়া প্রতিরোধে ও বিদ্যুতের ৯৮ শতাংশ রূপান্তর কার্যকারিতা নিশ্চিত করা হবে। সে হিসেবে বিদ্যুতের সবচেয়ে কম অপচেয়ে দ্রুত চার্জিং সল্যুশন হচ্ছে রিয়েলমি ৭ প্রো।

রিয়েলমি ৭ প্রো’র ৪,৫০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারিতে ডুয়াল সেল (২,২৫০ মিলি অ্যাম্পিয়ার*২) রয়েছে এবং সুপার ডার্ট এমসিইউয়ের (মাইক্রো কন্ট্রোল ইউনিট কন্ট্রোল) অধীন ১০ ভোল্ট ৬.৫ অ্যাম্পিয়ারে ব্যাটারি সরাসরি চার্জ হবে। চার্জিংয়ের গতি ও তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রেখে ফোন চার্জ করতে ও উপযুক্ত ভোল্টেজ পেতে ভোল্টেজ আলাদা করার জন্য সুপার ডার্ট চার্জ পাম্প ব্যবহার করবে।

রিয়েলমি ৭ প্রো ১৮ ওয়াট পিডি/কিউসি সাপোর্ট করে, যা ইউএসএবি কানেকশনে দিয়ে চার্জের ক্ষেত্রে ফোনটি আরো ভার্সাটাইল করেছে। এছাড়া অতিরিক্ত বিদ্যুতের চাপসহ ফিউজ হওয়া থেকে ব্যাটারির সুরক্ষায় রিয়েলমি ৭ প্রো’তে রয়েছে ইন্টেলিজেন্ট ফাইভ-কোর চিপ।

আরও পড়তে পারেন :  ফেসবুকে খেলা যাবে মীনা গেম

সুবিশাল ৬.৪ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে

বড় ডিসপ্লে ছাড়া স্মার্টফোন কোনো কাজেই আনন্দ আসে না। রিয়েলমি ৭ প্রো’তে রয়েছে ৬.৪ ইঞ্চির সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে, যার স্যাম্পলিং রেট ১৮০ হার্টজ। ফোনটি ব্যবহারে গেমারদের জন্য এ টাচ সেনসিটিভিটি একটি উল্লেখযোগ্য সংযোজন হিসেবে বিবেচিত হবে। ছবির মান ও ব্যাটারির সক্ষমতা বৃদ্ধিতে এবং যেকোনো ক্ষেত্রেই ভালো কালার ও কন্ট্রাস্ট রেন্ডারিংয়ের ক্ষেত্রে এলইডি ডিসপ্লের চেয়ে ওএলইডি ডিসপ্লে ভালো পারফর্ম করে। ফোনটিতে রয়েছে ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট।

স্মার্টফোনটিতে কনটেন্ট দেখার অভিজ্ঞতাকে সমৃদ্ধ করতে এর ফুল এফএইচডি প্লাস ডিসপ্লে’র রেশিও ২০:৯ এবং এর স্ক্রিন টু বডি রেশিও হচ্ছে ৯০.৮ শতাংশ। ৬০০ নিটস পিক ব্রাইটনেসের কারণে ঘরের বাইরে দিনের আলোতেও রিয়েলমি ৭ প্রো’র ডিসপ্লে’তে কনটেন্ট দেখতে কোনো অসুবিধা হবে না। ডলবি অ্যাটমোস স্টেরিও স্পিকার এবং হাই রেজ্যুলেশনের সাউন্ডের কারণে স্মার্টফোনটির অডিও কোয়ালিটিও অসাধারণ।

দুর্দান্ত ছবি তুলতে ৬৪ মেগাপিক্সেলের কোয়াড ক্যামেরার সাথে সনি আইএমএক্স৬৮২ সেন্সর

রিয়েলমি ৭ প্রো’র কোয়াড ক্যামেরা সেটআপে রয়েছে ৬৪ মেগাপিক্সেলের সনি আইএমএক্স৬৮২ সেন্সর— প্রধান ক্যামেরার অ্যাপারচার এফ/১.৮। এ সেটআপে রয়েছে সেকেন্ডারি ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স, দুই মেগাপিক্সেলের ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইট পোর্ট্রেট ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো লেন্স। এ ক্যামেরা সেটআপ ব্যবহারকারীকে যেকোনো পরিস্থিতিতে চমৎকার ও স্বচ্ছ ছবি তোলার সুযোগ করে দেবে। ৩২ মেগাপিক্সলের ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ইন-ডিসপ্লে সেলফি ক্যামেরার সাথে ৮৫ ডিগ্রির ফিল্ড অব ভিউ এবং এফ/২.৫ অ্যাপারচার সেলফিকে দেবে ভিন্ন মাত্রা।

আরও পড়তে পারেন :  ফেসবুকে খেলা যাবে মীনা গেম

শক্তিশালী এ ক্যামেরা সেটআপে রয়েছে এক্সপার্ট মোড, প্রো-নাইটস্কেপ, স্ট্যারি মোড, সুপার নাইটস্কেপ, টাইমল্যাপ্স, পোর্ট্রেট মোড, এইচডিআর, এআই সিন রকগনিশন এবং এআই বিউটি ফিচার। এর ভিডিও মোডে ফোর-কে/৩০এফপিএস ভিডিও রেকর্ডিং করা যাবে। এছাড়াও রয়েছে ১০৮০পি/১২০এফপিএস, ৭২০পি/২৪০এফপিএস স্লো-মো ভিডিও রেকর্ডিং সুবিধা।

শক্তিশালী পারফরম্যান্সে ৮ ন্যানোমিটার স্ন্যাপড্রাগন ৭২০জি

রিয়েলমি ৭ প্রো’তে রয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭২০জি (৮ ন্যানোমিটার) চিপসেট। ৮জিবি এলপিডিডিআর৪এক্স র‍্যাম, ১২৮ জিবি ইউএফএস ২.১ স্টোরেজ এবং ক্রায়ো ৪৬৫ সিপিইউ দিবে ২.৩ হিগাহার্টজ স্পিড। অসাধারণ পারফরম্যান্সের জন্য রিয়েলমি ৭ প্রো প্রথম স্মার্টফোন হিসেবে টিইউভি রেইনল্যান্ড স্মার্টফোন রিলায়াবিল্যাটি ভেরিফিকেশন টেস্টে উত্তীর্ণ হয়েছে।

স্মার্টফোনপ্রেমী তরুণরা সবসময়ই আকর্ষণীয় দামে অসাধারণ ফিচারের স্মার্টফোন কেনার চিন্তা করে। তাদের সে চাহিদা বিবেচনায় অত্যাধুনিক চার্জিং সুবিধা, শক্তিশালী পারফরম্যান্স সাথে অসাধারণ ক্যামেরার রিয়েলমি ৭ প্রো তরুণ প্রজন্মের জন্য উপযুক্ত স্মার্টফোন। দারুণ এ স্মার্টফোনটির বাজারমূল্য ২৭ হাজার ৯৯০ টাকা। কেনার জন্য ক্লিকঃ https://realmebd.com/bd/realme-7-pro.html

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here