ব্যাংকের পিই রেশিও আছে আগের অঙ্কেই

35

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর বিভিন্ন খাতের মধ্যে একমাত্র ব্যাংকিং খাতের পি/ই রেশিও বা মূল্য আয় অনুপাত রয়েছে একক অঙ্কেই। চলতি জুলাই মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের রেশিও বিদায়ী সপ্তাহেও ধরে রেখেছে ব্যাংকিং খাত। বিদায়ী সপ্তাহের লেনদেন শেষে ব্যাংক খাতের মূল্য আয় অনুপাত দাঁড়ায় ৮। বাকি খাতগুলোর পিই রেশিও ১০ বা তার বেশি। এটি ২১ খাতের মধ্যে সবচেয়ে কম। সবচেয়ে বেশি পিই রেশিও হচ্ছে আর্থিক খাতে। সিমেন্ট খাতের পিই রেশিও ছিল ২৭। যা সবচেয়ে বেশি।

উল্লেখ্য, পিই রেশিও বা মূল্য-আয় অনুপাত পুঁজিবাজারে একটি কোম্পানির শেয়ার কতটা বিনিয়োগ অনুকূল তা বুঝাতে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। শেয়ারের সর্বশেষ বাজার মূল্যকে এর শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস দিয়ে ভাগ করলে পিই রেশিও বা মূল্য-আয় অনুপাত পাওয়া যায়। সাধারণভাবে পিই রেশিও যত কম হয় সংশ্লিষ্ট শেয়ারকে তত নিরাপদ মনে করা হয়। অন্যদিকে পিই রেশিও বেশি হলে সেই শেয়ারকে তত বেশি ঝুঁকিপূর্ণ মনে করা হয়ে থাকে। এ বিবেচনায় এখনো ব্যাংকিং খাতের শেয়ারই বিনিয়োগের জন্য সবচেয়ে অনুকূল।

আরও পড়তে পারেন :  পদ্মা ইসলামী লাইফের বোর্ড সভা ২৯ আগস্ট

অন্যান্য খাতের পিই রেশিও বিশ্লেষণে দেখা যায়, জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে ১২,প্রকৌশল খাতে ১৩ দশমিক ৮০,বস্ত্র খাতে ১৫,সাধারণ বিমা খাতে ১৫ দশমিক ৩০,টেলিকমিনেকেশন খাতে ১৫ দশমিক ৭০,ওষুধ ও রসায়ন খাতে ১৬ দশমিক ৯০,সিরামিক খাতে ১৮ দশমিক ১০,সেবা ও আবাসন খাতে ১৮ দশমিক ২০, ট্যানা্রী খাতে ১৮ দশমিক ৭০,পেপার ‍ও প্রিন্টিং খাতে ২০ দশমিক ৫০,খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক খাতে ২১ দশমিক ১০, তথ্য ও প্রযুক্তি খাতে ২৩, বিবিধ খাতে ২৪ দশমিক ৪০ ও ব্যাংক বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান।

লংকাবাংলা সিকিউরিটিজ লিমিটেড সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আরও পড়তে পারেন :  সম্পন্ন হলো মোজাফফর আহমদের প্রথম জানাজা , প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here