ব্যক্তিগত জীবন নয়, অপূর্বকে বিচার করুন তাঁর কাজগুলো দিয়ে: অদিতি

75

ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও নাজিয়া হাসান অদিতিকে সুখী দম্পতি হিসেবে জেনে এসেছেন সবাই। কিন্তু সেই সুখের সংসারে হঠাৎ এলো ভাঙনের সুর।

রোববার বিকালে নিজের ফেসবুকে রিলেশনশিপ স্ট্যাটাস ‘ম্যারিড’ পরিবর্তন করে ‘ডিভোর্সড’ লিখেন অপূর্বের স্ত্রী। তারা দুজনেই বিচ্ছেদের পথে হেঁটেছন। এরপর নিজের ফেসবুকে নিজেদের অবস্হান পরিষ্কার করে একটি স্ট্যাটাস দেন অদিতি।

সেখানে তিনি লেখেন, আসসালামু আলাইকুম সবাইকে। মোহাম্মদ জিয়াউল ফারুক অপূর্ব একজন অমায়িক বাবা, ভাই, দায়িত্বশীল পুত্র এবং একজন ভাল মানুষ। লাখো ভক্তদের কাছে তিনি অসম্ভব মেধাবী, যা তিনি নিজেই উপার্জন করেছেন। তিনি সেখানেই তাঁর যোগ্য। তাঁর ব্যক্তিগত জীবন দিয়ে নয়, দয়া করে তাঁর অসাধারণ কাজগুলি দ্বারা তাকে বিচার করুন।

আরও পড়তে পারেন :  ভারত গেলেই গ্রেফতার হবেন গায়ক নোবেল

তিনি আরও লিখেন, দুর্ভাগ্যক্রমে আমরা অসংখ্য কারণে একসাথে থাকছি না তবে আমি তাঁর জন্য সুখী ও সমৃদ্ধ জীবন কামনা করছি। তিনি আমাকে আমার সেরা উপহার দিয়েছেন, যেটা আমার পুত্র আয়াশ। সেইসাথে দিয়েছে পরিবারের সুন্দর সদস্যদের ভালবাসা।

এমন একটা সিদ্ধান্তের জন্য দয়া করে আমাদের কাউকে বিচার করবেন না। আপনারা আমাদের সবসময় আমাদের ভালবেসে এসেছেন এবং সমর্থন করেছেন, আমরা আশা করি এটি আপনারা অবিরত রাখবেন।

সেইসাথে সব সাংবাদিক এবং সাংবাদিকদের কাছে আমি বলতে চাই দয়া করে এই বিষয়ে কোনও ভুয়া সংবাদ প্রকাশ করবেন না। আমাদের সকলের জন্য প্রার্থনা করুন। সবাই নিরাপদে থাকুন।

আরও পড়তে পারেন :  নিজের অভিনীত ছবি দিয়েই মিমের ইউটিউব চ্যানেলের যাত্রা শুরু

২০১১ সালের ১৪ জুলাই ভালোবেসে নাজিয়া হাসান অদিতিকে বিয়ে করেন অপূর্ব। তাদের সেই সংসারে জায়ান ফারুক আয়াশ নামে একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here