বিদ্যুৎখাত সংস্কার: সেবার মান বাড়াতে মূল্য নিয়ন্ত্রণের পরামর্শ

56

বিদ্যুৎখাত এখন নতুন রূপ পেয়েছে। আগের মতো বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি) এককভাবে উৎপাদন, সঞ্চালন ও বিতরণ করতে পারছে না। পুর্নগঠনের ফলে এখন উৎপাদন, সঞ্চালন ও বিতরণের কাজ করছে ভিন্ন ভিন্ন কোম্পানি। দশ বছর মেয়াদি এই পুনর্গঠন-প্রক্রিয়া আগামী বছর শেষ হচ্ছে। টানা নয় বছরের এই কার্যক্রমকে মোটামুটি সফল বললেও মূল্য নিয়ন্ত্রণে প্রতিষ্ঠানিক দক্ষতা উন্নয়নে আরও জোর দেওয়া উচিত ছিল মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিদ্যুৎ বিভাগ সূত্র জানায়, দেশের চাহিদা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে চিন্তা করা হয়েছে বিপিডিবি এককভাবে আর সব কিছু করতে পারবে না। তখনই সংস্কারের কথা চিন্তা করা হয়। অনেক আগে থেকে পল্লী এলাকায় বিদ্যুৎ বিতরণে পৃথকভাবে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড কাজ শুরু করে। তবে, একসময় শহরেও আলাদা কোম্পানিকে দিয়ে বিদ্যুৎ বিতরণের প্রয়োজন দেখা দেয়। এই সংস্কারের অংশ হিসেবে দেশের বিতরণকে পুরোপুরি পিডিবির হাত থেকে নিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। যদিও দেশের বেশ কিছু এলাকায় এখনও পিডিবি বিদ্যুৎ বিতরণ করছে।

আরও পড়তে পারেন :  সৌদির তেলক্ষেত্রে হামলা, তেলের দাম ১০ শতাংশ বৃদ্ধি

অন্যদিকে, উৎপাদনেও নতুন কোম্পানি এসেছে। তবে, এসব কোম্পানির সব ক’টির দক্ষতা সমান কিনা, তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। পরিচলন দক্ষতার উন্নয়ন না ঘটালে শুধু আলাদা করলেই উন্নয়ন সম্ভব নয় বলে মনে করা হচ্ছে।

এই প্রসঙ্গে জ্বালানি বিশেষজ্ঞ বুয়েটের অধ্যাপক ড. ইজাজ হোসেন বলেন, ‘বিদ্যুৎখাত সংস্কারের ক্ষেত্রে যেসব উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, এর বেশিরভাগই বাস্তবায়ন করা হয়েছে। তবে, সংস্কারের ফলে বিদ্যুৎখাতের উন্নয়ন কতখানি হয়েছে, তা পর্যালোচনা প্রয়োজন। এই সংস্কারে সব ক্ষেত্রে উন্নয়ন ঘটেনি বলেই মনে করি। যদি, তাই হতো, তাহলে বিদ্যুতের মূল্যের ক্ষেত্রে আরও বেশি নিয়ন্ত্রণ করা যেতো।’ তিনি বলেন, ‘সংস্কারের অংশ হিসেবে তাদের আরও একটু যত্নবান হওয়া উচিত ছিল। আমাদের জবাবদিহিতা, স্বচ্ছতা থাকার পাশাপাশি বাধা দেওয়ার প্রবণতা যদি না থাকে, তাহলে তো সমস্যা। বিদ্যুতের মূল্য বাড়লে জিনিসপত্রের মূল্য বেড়ে যাবে। বিদ্যুতের মূল্য নিয়ন্ত্রণ এখন সবচেয়ে বড় বিষয়। সংস্কারে সাশ্রয়ী হওয়ার বিষয়ে একেবারে নজর দেওয়া হয়নি। এতে বিদ্যুতের মূল্য বেড়ে গেছে।’

আরও পড়তে পারেন :  রাজধানীতে গ্যাসের চাপ কম

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here