ফ্রিল্যান্সারদের বৈদেশিক ব্যয় পরিশোধের সীমা বাড়ল

25

ফ্রিল্যান্সার বা আইটি (তথ্যপ্রযুক্তি) ডেভলপারদের সুবিধার্থে বৈদেশিক ব্যয় পরিশোধের সীমা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এখন থেকে প্রতিজন বছরে আইটি ব্যয় বাবদ বিদেশে ৫০০ ডলার পরিশোধ করতে পারবেন। এতদিন সর্বোচ্চ ৩০০ ডলার পরিশোধ করা যেতো। একইসঙ্গে এখন থেকে ভার্চুয়াল কার্ডের পাশাপাশি মোবাইল ওয়ালেটের মাধ্যমে দেশের বাইরে পরিশোধ করতে পারবেন ফ্রিল্যান্সাররা।

সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি ডিপার্টমেন্ট’এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ফ্রিল্যান্সারদের সেবা রফতানির জন্য দেশের বাইরে নিবন্ধনসহ বিভিন্ন কাজে অর্থ পরিশোধ করতে হয়। এতোদিন শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক কার্ডের মাধ্যমে এ পরিশোধ করতে পারতেন। এখন ফ্রিল্যান্সারদের পক্ষে মোবাইল ওয়ালেট সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান অনলাইনে পরিশোধ করতে পারবে। অর্থ পরিশোধের পর গ্রাহকের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেবে ডিজিটাল ওয়ালেট সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান।

আরও পড়তে পারেন :  ভারতে ভয়াবহ নৌকাডুবি: নিহত ১২, নিখোঁজ ৩০

জানা গেছে, আইটি খাতের ফ্রিল্যান্সিংয়ের জন্য নির্দিষ্ট অর্থের বিনিময়ে বিদেশি প্রতিষ্ঠানে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের (অ্যাপ) মাধ্যমে নিবন্ধিত হতে হয়। এছাড়া ওয়েবসাইট নির্মাণ, সার্ভার ভাড়াসহ বিভিন্ন সেবার জন্য বৈদেশিক মুদ্রা খরচ করতে হয়। এ ক্ষেত্রে যারা নতুন ফ্রিল্যান্সার বা আইটি ডেভলপার শুরুতেই তাদের কোনো আয় থাকে না। ফলে তাদের দেশ থেকে অর্থ পাঠাতে হয়। তাদের সুবিধার্থে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ বিদেশি ব্যয় পরিশোধের সীমা বাড়িয়েছে।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here