পাহাড়ে ভ্রমণের ১০ প্রয়োজনীয় টিপস

0
31

নিজস্ব প্রতিবেদক, বিনিয়োগ বার্তা:

চলছে বর্ষাকাল। ঝুম বৃষ্টিতে পাহাড়ে ঘুরতে যাওয়াটা সত্যিই কষ্টসাধ্য। কিন্তু এই বর্ষায়ই প্রকৃতি যেন তার সবটুকু রূপ ঢেলে দেয় পাহাড়ি এলাকায়। সারি সারি সবুজ পাহাড়ের ফাঁকে আনমনে ঘুরে বেড়ায় ছন্নছাড়া মেঘের দল। অবিরাম বৃষ্টিতে পাহাড়ের বৃক্ষরাজি লাভ করে নবযৌবন। পাহাড়ের বুক চিরে শত শত ঝরণা দেখতে চাইলে বর্ষাকালের বিকল্প নেই।

তাই অনেকেই করছেন পাহাড়ে ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনা। এই বর্ষায় পাহাড়ে ভ্রমণেচ্ছুকদের জন্য রইল ১০টি অতিগুরুত্বপূর্ণ টিপস। সেগুলো একটু খেয়াল রাখলে আপনার ভ্রমণ হবে ঝামেলামুক্ত।

১. ঘুরতে যাওয়ার আগে আনুষঙ্গিক জিনিসপত্রের সাথে রেইনকোট ও ছাতা নিতে ভুলবেন না। পায়ে পড়ার জন্য একাধিক জুতা নিন। বিশেষ করে আরামদায়ক প্লাস্টিকের সু-জাতীয় জুতা, যা ভিজলেও কোনো সমস্যা হবে না। বিভিন্ন ব্রান্ডের জুতার দোকানেই পাবেন এসব জুতা।

২. সম্প্রতি পাহাড় ধসে বিভিন্ন জায়গায় বহু মানুষ হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। তাই সাবধান হোন। যেসব এলাকায় ধসের ঝুঁকি রয়েছে, সেগুলো এড়িয়ে চলুন। প্রয়োজনে গাইডের সাহায্য নিন।

৩. পাহাড়ে উঠতে গিয়ে তাড়াহুড়া করবেন না। কারণ, বৃষ্টি পানিতে পাহাড় অনেকটাই পিচ্ছিল হয়ে যায়। তাই পাহাড়ে যেখানেই যান, ধীরে-সুস্থে চলাফেরা করুন। একবার ঢাল দিয়ে গড়াতে শুরু করলে কোথায় গিয়ে থামবেন, কেউ জানে না।

৫. সমতল থেকে পাহাড়ে ওঠার সময় ভুলেও পেটপুরে খাবেন না। ভাত তো মোটেই নয়। ভাতের বদলে হালকা খাবার খান।

৬. যেকোনো কিছু করার আগে বয়স, শারীরিক সক্ষমতা ও আবহাওয়ার কথা চিন্তা করুন। ভালো ও আকর্ষণীয় ছবি তুলতে ঝরণার একেবারে কাছে কিংবা পাহাড়ের কিনারে চলে যাবেন না। বর্ষায় পিচ্ছিল পাহাড়ে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

৭. বাড়ি ফেরার পথে পাহাড় থেকে সমতলে নামতে হলে হাতে সময় নিয়ে নামুন। ধীরে ধীরে নামুন। বয়স্ক ও ছোটদের দিকে নজর দিন।

৮. পাহাড়ে ভ্রমণে গিয়ে খাবার পানির বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করুন। পাহাড়ের পানি সবার সহ্য হয় না। তাই পানি কিনে খান। নইলে মারাত্মক হিল ডায়ারিয়া হয়ে পুরো ভ্রমণটাই মাটি হয়ে যেতে পারে। শুধু তাই নয়, জীবনের জন্যও মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ এ ডায়রিয়া।

৯. যেখানে সেখানে যা ইচ্ছা তা খাবেন না। খাওয়ার ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। পাহাড়ে নানা ধরনের খাবার পাওয়া যায়। কোনটা কি, না-জেনে খাবেন না। ভ্রমণে গিয়ে খাওয়া নিয়ে অ্যাডভেঞ্চার না করাটাই ভালো।

১০. পাহাড়ি এলাকায় অনেক হিংস্র জীব-জন্তু এবং দস্যু থাকে। এছাড়া, বর্ষায় পিচ্ছিল পাহাড়ে আলোকস্বল্পতার জন্য যেকোনো সময় যা কিছু ঘটতে পারে। তাই যেখানেই যান, অন্ধকার হওয়ার আগে হোটেলে ফিরুন। পাহাড়ি পথে রাতে বেরোবেন না।

বিনিয়োগ বার্তা/পিএ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here