পশ্চিমবঙ্গে নাগরিক তালিকা হবেই : স্মৃতি ইরানি

99

আসামে জাতীয় নাগরিক তালিকার (এনআরসি) প্রতিবাদে রাস্তায় নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এরই মধ্যে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি জানিয়ে দিলেন, পশ্চিমবঙ্গেও নাগরিক তালিকা করার বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

মোদি সরকারের ১০০ দিন উপলক্ষে মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) কলকাতায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন স্মৃতি ইরানি। এ সময় ১০০ দিনে মোদি সরকারের সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরেন। কাশ্মীরে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল থেকে নাগরিক তালিকার বিষয়ও সরকারের সাফল্য হিসেবে ব্যাখ্যা করেন তিনি।

জাতীয় নাগরিক পঞ্জি নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে বলার সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রসঙ্গে স্মৃতি ইরানি বলেন, এক সময় ভুয়া ভোটার ঠেকাতে সচিত্র ভোটার কার্ডের পক্ষে কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এটা মমতার দ্বিমুখী আচরণ।

আরও পড়তে পারেন :  রাশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী মিখাইল মিশুস্তিন

তবে সচিত্র ভোটার কার্ডের আন্দোলনের সঙ্গে নাগরিক পঞ্জির কী সম্পর্ক, জানতে চাইলে প্রশ্নটি এড়িয়ে গিয়ে স্মৃতি বলেন, অনুপ্রবেশকারীদের ঠেকাতে পশ্চিমবঙ্গসহ সারা দেশে নাগরিকপঞ্জি হবে। এটা বিজেপির ঘোষিত সিদ্ধান্ত।

এদিকে, যে প্রক্রিয়ায় আসামে নাগরিক পঞ্জি হয়েছে তার বিরোধিতা করে আগামীকাল বৃহস্পতিবার মিছিল করবে তৃণমূল। মুখ্যমন্ত্রী মমতারও সেই মিছিলে যোগ দেয়ার কথা রয়েছে।

ইতোমধ্যে জাতীয় নাগরিক পঞ্জির প্রতিবাদে রাজ্যের ব্লকে ব্লকে মিছিল এবং সভা করেছে তৃণমূল। দলের শহীদ দিবসের কর্মসূচির পরপরই ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচির মাধ্যমে জনসংযোগ শুরু করেছে দলটি। কিন্তু রাজনৈতিক কর্মসূচিতে তাদের পথে নামতে দেখা যায়নি। সেই অর্থে লোকসভা ভোটের পর বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সরাসরি গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে রাস্তায় নামতে চলেছে রাজ্যের শাসক দল।

আরও পড়তে পারেন :  মিয়ানমার সফরে চীনের প্রেসিডেন্ট, রাখাইনে হবে সমুদ্রবন্দর

গত ৩১ আগস্ট আসামের জাতীয় নাগরিক তালিকা (এনআরসি) প্রকাশিত হয়। দ্বিতীয় দফায় প্রকাশিত এই তালিকা থেকে প্রায় ১৯ লাখ মানুষকে বাদ দেয়া হয়েছে।

 

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here