‘পরাজয় নিশ্চিত জেনে বিএনপি ইভিএমের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছে’

40

সরস্বতী পূজার জন্য ভোটের দিন পরিবর্তনে আওয়ামী লীগের কোনো আপত্তি নেই বলে জানিয়েছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন (ইসি) যদি অনড় থাকে সেখানে আমাদের কিছু করার নেই। আমরা বলেছি, পরিবর্তন হলে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। তারা সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে সিদ্ধান্ত নেয়ার মালিক। কাজেই নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ারে আমরা কোনো হস্তক্ষেপ করতে চাই না। ধর্মীয় আবেগ জড়িত বিধায় তারা যদি মনে করে তারিখ পরিবর্তন করার সুযোগ আছে। সেখানে আমাদের তরফ থেকে কোনো আপত্তি নেই।

শনিবার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক ধানমণ্ডির কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ সব কথা বলেন।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, হিন্দু মহাজোট কারা আপনারা ভালো করেই জানেন? এরকম অনেক সংগঠন আমাদের দেশে আছে। হিন্দু মহাজোট হিন্দু সমাজের প্রতিনিধিত্ব করে না। একটা ক্ষুদ্র অংশ; গয়েশ্বর রায়ও তো বিএনপি করে। তাই বলে হিন্দু সমাজ কি গয়েশ্বরের কথা মতো ভোট দেবে?

আরও পড়তে পারেন :  খালেদার জামিন শুনানি রোববার

সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহীদের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয় দলটির সাধারণ সম্পাদকের কাছে। জবাবে তিনি বলেন,আমি আপনাদের (সাংবাদিক) প্রতি সম্মান রেখে একটা কথা বলি। আমাদের মতো দেশে এ সব শৃঙ্খলাবিরোধী বিষয়টা দলের মধ্যে থাকে। আমরা তো অনেক বছর ক্ষমতায় আছি। ২০০৯ সাল থেকে ১১ বছর। এতে বিদ্রোহ বা স্বতন্ত্র প্রার্থী; এই বিষয়গুলো থাকবেই। এত বড় দলের মধ্যে এ সব সমস্যা থাকবেই। কিন্তু সেটা তো আমাদের বিজয়ের পথে অন্তরায় হয় না। আমরা তো নির্বাচিত হচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, এ সব ছোট-খাটো সমস্যা নিয়েই আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। দলকেও সংগঠিত করছি। আমরা নির্বাচনে বিজয়ী হচ্ছি। বিরোধী দলের যে চ্যালেঞ্জ, সেই চ্যালেঞ্জও মোকাবিলা করছি। আমাদের পরিবারের ভেতরের এই বিষয়টা নিয়ে তো আপনাদের কোনো অসুবিধা দেখছি না। সেটা যদি নিউজ করার জন্য করতে হয়, আপনারা করবেন। কোনো অসুবিধা নেই। বিদ্রোহের জন্য আওয়ামী লীগ ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে, এমন তো না। আপনারা বিএনপিকে কি প্রশ্ন করেন তাদের যে বিদ্রোহী আছে?

আরও পড়তে পারেন :  লন্ডন যাওয়ার জন্য হাইকোর্টে জামিন চেয়েছেন খালেদা জিয়া

দলীয় মেয়র প্রার্থীদের জয়ের ব্যাপারে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমাদের পার্টি থেকে মেয়র পদে স্বচ্ছ ভাবমূর্তির দু’জনকে মনোনয়ন দিয়েছি। জনগণ স্বচ্ছ ভাবমূর্তির প্রার্থীকে ভোট দিতে চান। নির্বাচনের প্রচারণায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের পক্ষে ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত সমর্থন রয়েছে। জনতার যে ঢল নেমেছে তাতে আমরা বিশ্বাসী- নির্বাচনে দুই সিটিতেই বিজয়ী হব। সেই লক্ষ্যেই আমরা কাজ করছি।

তিনি আরও বলেন, কাউন্সিলরদের মধ্যে কিছু কিছু প্রার্থী আছে যারা মনোনয়নকে উপেক্ষা করে নিজেরা প্রার্থী হয়েছেন। তাদেরও বসানোর ব্যাপারে আমাদের দলের শৃঙ্খলা কমিটি সক্রিয় রয়েছে। এদের মধ্যে কেউ কেউ সাড়াও দিয়েছেন।

ইভিএম প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, ইভিএমের ব্যাপারে আমাদের অবস্থান অত্যন্ত পরিষ্কার। আমরা আধুনিক প্রযুক্তিতে বিশ্বাস করি। ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গণনা বিষয়টি অনেক সহজ। প্রযুক্তিগত দিক থেকেও এর কার্যকারিতা স্পষ্ট।

বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, তারা এখন নানা টালবাহানা করছে। নির্বাচন হওয়ার আগেই নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ ও বিতর্কিত করার জন্য তারা নানামুখী তৎপরতা চালাচ্ছে। আমাদের কাছে মনে হয়, পরাজয় নিশ্চিত জেনে তারা ইভিএমের বিরুদ্ধে বিষোদগার করছে। ইভিএমকে একটা ছুতো বলে সেটা নিয়ে নির্বাচনকে বিতর্কিত করার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে।

আরও পড়তে পারেন :  'খালেদা জিয়ার প্যারোল নিয়ে কাদেরের সঙ্গে কথা হয়নি'

‘দুই সিটি নির্বাচনে জয় লাভের জন্যই নির্বাচনে অংশ নিয়েছি এবং আমাদের প্রার্থীই নির্বাচনে জয়লাভ করবে’- মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি সব সময় দিবাস্বপ্ন দেখে। গণজোয়ারও তাদের একটা দিবাস্বপ্ন। এই স্বপ্ন দুঃস্বপ্নে পরিণত হবে। কারণ নির্বাচনে জেতার মতো বাস্তবতা ও অবস্থা তারা সৃষ্টি করতে পারেনি।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, এস এম কামাল হোসেন, সাখাওয়াত হোসেন শফিক, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, ক্রীড়া সম্পাদক হারুনুর রশীদ প্রমুখ।

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

 

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here