দেশ লকডাউন হওয়া উচিত: হাইকোর্ট

16

বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সরকারের পক্ষ থেকে যে নির্দেশনা আসবে তা মানতে এবং এর ওপর আস্থা রাখতে বলেছেন হাইকোর্ট। করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশে লকডাউন হওয়া উচিত বলেও মতামত দিয়েছেন আদালত।

আদালত বলেছেন, করোনা মোকাবিলায় দল-মত নির্বিশেষে এক হয়ে কাজ করতে হবে। তাইওয়ান চীনের পাশের দেশ হওয়া সত্ত্বেও তারা কীভাবে করোনা মোকাবিলা করতে সক্ষম হয়েছে সেই মডেলটি অনুসরণ করতে হবে। করোনাভাইরাস একটি বৈশ্বিক সমস্যা। যেহেতু এখনও প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি তাই এই পরিস্থিতিতে দেশে লকডাউন হওয়া উচিত।

সারা দেশে করোনাভাইরাস পরীক্ষার ল্যাব স্থাপনের নির্দেশনা চেয়ে এক সম্পূর্ক আবেদনের শুনানি শেষে বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীরের বেঞ্চ এ পর্যবেক্ষণ দেন। এ পর্যবেক্ষণের পর রিটটি নিষ্পত্তি করে দেন আদালত। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার হুমায়ন কবির পল্লব।

করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য ল্যাব স্থাপনের নির্দেশনা চেয়ে দায়ের করা রিটের শুনানিতে হাইকোর্ট বেঞ্চ এ সব কথা বলেছেন বলে জাগো নিউজকে জানান রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার হুমায়ন কবির পল্লব।

এর আগে করোনা পরীক্ষার জন্য বিশেষ ল্যাব স্থাপনের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিটটি দায়ের করেছিলেন তিনি।

আদালতের বরাত দিয়ে এ আইনজীবী বলেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় দল-মত নির্বিশেষে এক হয়ে কাজ করতে হবে। চীনের পাশের দেশ হওয়া সত্ত্বেও তাইওয়ান কীভাবে করোনা মোকাবিলা করতে সক্ষম হয়েছে, সেই মডেলটি অনুসরণ করতে বলেছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশে লকডাউন হওয়া উচিত বলে মনে করেন আদালত।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে এ পর্যন্ত ৩৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আর দেশে এ ভাইরাসে প্রাণ গেছে ৫ জনের। আক্রান্তদের মধ্যে তিনজন চিকিৎসক সহ স্বাস্থ্যকর্মী বলে জানিয়েছে আইইডিসিআর।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

 

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here