ঢাবি থেকে ৬৯ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

40
du

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৯ জন শিক্ষার্থীকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। মঙ্গলবার উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শৃঙ্খলা পরিষদের সভায় এ সিদ্ধান্ত বহিষ্কার। বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীরা ২০১২-২০১৩ থেকে ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আখতারুজ্জামান বলেন, আমরা গোয়েন্দাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণ হওয়ায় ৬৯ জন শিক্ষার্থীকে সাময়িকভাবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তাদের নিরপরাধ প্রমাণের সুযোগও রাখা হচ্ছে। তাদের কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না-সে বিষয়ে সাত কার্য দিবসের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হবে।

আরও পড়তে পারেন :  ১ ডিসেম্বর থেকে চালকদের ডোপ টেস্ট, ধরা পড়লেই জেল

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সাময়িক বহিস্কৃত ৬৯ জন শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান এবং ৭ দিনের মধ্যে এর জবাব চাওয়া হবে।

এর আগে, গত ২৩ জুন ঢাবিসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি এবং চাকরির পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস ও জালিয়াতির অভিযোগে ৮৭ ঢাবি শিক্ষার্থীসহ ১২৫ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। প্রায় দেড় বছর ধরে চলা দীর্ঘ তদন্ত শেষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বহুল আলোচিত প্রশ্নফাঁস মামলায় দু’টি পৃথক আইনে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মোট চারটি চার্জশিট দাখিল করে সংস্থাটি। আজ তাদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেয়া হল।

আরও পড়তে পারেন :  ঢাবিতে ডিনের কার্যালয় ঘেরাওয়ে ছাত্রলীগের বাধা,উত্তপ্ত ক্যাম্পাস

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here