ডায়েট-ব্যায়াম করেও যে ভুলে ওজন কমছে না

40

ওজন কমানোর রেসে এখন অনেকেই দৌঁড়াচ্ছেন। বর্তমান কর্মব্যস্ত জীবনে অনেকেই অনিয়মিত জীবন-যাপন করে থাকেন। আর এ কারণেই দ্রত ওজন বেড়ে যাচ্ছে। যখন অতিরিক্ত ওজন বেড়ে যায়; তখন থেকে অনেকেই ডায়েট ও ব্যায়াম করা শুরু করেন ওজন কমাতে।

তবে চাইলেই তো আর ওজন কমানো যায় না। কারণ ওজন যতটা সহজে বাড়ে; তার চেয়ে ওজন কমানো অনেক কষ্টকর। এজন্য দ্রুত ওজন কমানোর কোনো উপায় নেই। নিয়মিত ব্যায়াম ও ডায়েট করা জরুরি।

অনেকেই হয়ত ওজন কমাতে গিয়ে একটি সমস্যার সম্মুখীণ হয়ে থাকেন, তা হলো কঠোর পরিশ্রমের পরও ওজন কমছে না। এ অভিযোগ সবার মনেই থাকে। এর জন্য দায়ী মূলত আপনি।

কারণ ডায়েট বা শরীরচর্চার পাশাপাশি নিশ্চয়ই আপনি এমন কোনো ভুল করছেন, যে কারণে ওজন কমছে না। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক, কেন আপনার ওজন কমছে না-

>> ইচ্ছাশক্তির অভাব থাকলে ওজন কমে না। এজন্য সবার আগে জরুরি নিজের মনকে শক্ত করা। আপনি ডায়েটও করছেন আবার ফাস্টফুডও খাচ্ছেন- এমনটি করলে কিন্তু ওজন কমবে না।

>> প্রথমদিকে অনেকেই কঠোরভাবে ডায়েট ও শরীরচর্চা করেন। কিছুদিন পরে যখন ওজন কমে না; তখন তিনি ডায়েট সঠিকভাবে অনুসরণ করেন না। এর ফলে ওজন আবারও বাড়তে শুরু করে। মনে রাখবেন, ওজন কমানোর কোনো শর্টকাট উপায় নেই। এজন্য ধৈর্য্য ধরে ডায়েট করতে হবে।

>> অনেকেই ভাবেন, বেশি ব্যায়াম করলে ওজন দ্রুত কমবে। ধারণাটি ভুল, কোনো কিছুই অতিরিক্ত করা ভালো না। বেশি হলে আপনি দৈনিক ২-৩ ঘণ্টা ব্যায়াম করতে পারবেন। এর চেয়ে বেশি করলে শরীর বেশি ক্লান্ত হয়ে পড়বেন। শরীররও হঠাৎ করে এতো প্রেসার নিতে পারবে না।

>> ওজন কমানোর জন্য সঠিক মোটিভেশন দরকার হয়। এক্ষেত্রে পরিবারের কাউকে নির্ধারণ করুন, যিনি আপনাকে সময় মতো ব্যায়াম করা কিংবা ডায়েটের বিষয়ে গাইডলাইন দেবেন।

>> অনেকেরই রাত জাগার অভ্যাস থাকে। ওজন কমাতে চাইলে রাতে অবশ্যই ৮ ঘণ্টা ঘুম জরুরি। ঘুমালে শরীরের হরমোন নিঃসরণ বাড়ে, যা ওজন কমানোর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কম ঘুম হলে শরীর আরও খাবার চায়। এতে ভিসারাল ফ্যাট বেড়ে গিয়ে ওজন বাড়িয়ে দেয়।

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here