টেলিমেডিসিন অ্যাপ ‘স্মার্ট হসপিটাল’

36

কোভিড-১৯ মহামারীর এ সময়ে হাসপাতাল ও ক্লিনিকে প্রায়ই স্বাস্থ্যসেবা প্রদান প্রক্রিয়া বিঘ্নিত হচ্ছে। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের অনেকেই ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যঝুঁকি বিবেচনায় সরাসরি রোগী দেখা বন্ধ করে দিয়েছেন; এতে তাদের সেবা থেকে রোগীরা বঞ্চিত হচ্ছেন।

আবার অনেক রোগী করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি থাকায় চেম্বারে এসে ডাক্তার দেখাতে পারছেন না। স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে হাসপাতাল, রোগী ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সেতুবন্ধে যাত্রা শুরু করল টেলিমেডিসিন অ্যাপ ‘স্মার্ট হসপিটাল’। প্লে স্টোর থেকে হাসপাতালের ব্যবস্থাপনায় নিয়োজিত কেউ এ অ্যাপ ডাউনলোড করে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে মাত্র ১০ মিনিটের মধ্যেই চালু করতে পারবেন নিজস্ব টেলিমেডিসিন সেবা।

আরও পড়তে পারেন :  অনলাইন মিটিংয়ে খরচ ৫৭ লাখ, ব্যাখ্যা চাইলেন মন্ত্রী

এ অ্যাপ ব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট হাসপাতাল বা ক্লিনিক খুব সহজেই আউটডোর কনসালটেশন, ইনডোর কনসালটেশন ও ফলোআপ কনসালটেশন প্রদান করতে পারবে। এক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা হাসপাতালে বা ক্লিনিকে উপস্থিত না থেকেও ভিডিও কনসালটেশনের মাধ্যমে রোগীর স্বাস্থ্য পরামর্শ প্রদান করতে পারবেন।

হ্যালো ডক্টর ডট এশিয়ার প্রধান কারিগরি উপদেষ্টা ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডা. হাবিবুর রহমান এক বিবৃতিতে বলেন, ‘স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাপনায় পৃথিবী এক নতুন সময় পার করছে যার জন্য আমাদের কোনো প্রস্তুতি ছিল না। তাই বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনায় শহরের বিশেষায়িত হাসপাতাল এবং জেলা-উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতাল-ক্লিনিকগুলো কোনো ধরনের বিনিয়োগ ছাড়াই এ অ্যাপ ব্যবহার করে টেলিমেডিসিন সেবা প্রদান শুরু করতে পারবে।

আরও পড়তে পারেন :  অনলাইন মিটিংয়ে খরচ ৫৭ লাখ, ব্যাখ্যা চাইলেন মন্ত্রী

প্রাথমিকভাবে ৫০টি বিশেষায়িত হাসপাতাল এবং ৫০০টি জেলা-উপজেলা পর্যায়ের হাসপাতাল-ক্লিনিক নিয়ে আমরা একটি টেলিমেডিসিন নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে চাই। পরবর্তী সময়ে বিদেশের বিশেষায়িত হাসপাতালগুলো টেলিমেডিসিন নেটওয়ার্কে যুক্ত হবে- যার মাধ্যমে একটি কার্যকর টেলিমেডিসিন রেফারেল নেটওয়ার্ক গড়ে উঠবে বলে বিশ্বাস করি।’

হ্যালো ডক্টর ডট এশিয়ার পরিচালন কর্মকর্তা মো. ফখরুল হাসান বলেন, ‘গত ১০ বছরের বেশি সময় ধরে আমরা টেলিমেডিসিন প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছি এবং কাজের স্বীকৃতি স্বরূপ ২০১৯ সালে ‘হ্যালো ডক্টর ডট এশিয়া’ ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড অর্জন করে।

ইতোমধ্যেই আমরা চিকিৎসকদের জন্য ‘হ্যালো ডক্টর প্রো’, রোগীদের জন্য ‘হ্যালো ডক্টর এশিয়া’ অ্যাপ চালু করেছি। বর্তমানে ২৫০ জনের বেশি চিকিৎসক টেলিমেডিসিন সেবা প্রদান করছেন। হাসপাতাল বা ক্লিনিকগুলো https://bit.ly/Hospital-App লিঙ্ক থেকে Smart Hospital অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবে।

আরও পড়তে পারেন :  অনলাইন মিটিংয়ে খরচ ৫৭ লাখ, ব্যাখ্যা চাইলেন মন্ত্রী

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here