টমাস আলভা এডিসন জন্ম ১১ ফেব্রুয়ারি

0
130

ডেস্ক: আজ ১১ ফেব্রুয়ারি মার্কিন উদ্ভাবক টমাস আলভা এডিসন জন্ম দিনি। তিনি ১৮৪৭ সালের এই দিনের জন্ম গ্রহন করেন। তার মৃত্যু হয় ১৯৩১ সালের ১৮ অক্টোবর। তিনি গ্রামোফোন, ভিডিও ক্যামেরা এবং দীর্ঘস্থায়ী বৈদ্যুতিক বাতি (বাল্ব) সহ বহু যন্ত্র তৈরি করেছিলেন যা বিংশ শতাব্দীর জীবনযাত্রায় ব্যাপক প্রভাব ফেলেছিল।[১]

এডিশন ইতিহাসের অতিপ্রজ বিজ্ঞানীদের অন্যতম একজন বলে বিবেচিত, যার নিজের নামে ১,০৯৩টি মার্কিন পেটেন্টসহ যুক্তরাজ্যে, ফ্রান্স এবং জার্মানির পেটেন্ট রয়েছে। গণযোগাযোগ খাতে বিশেষ করে টেলিযোগাযোগ খাতে তার বহু উদ্ভাবনের মাধ্যমে তার অবদানের জন্য তিনি সর্বস্বীকৃত। যার মধ্যে একটি স্টক টিকার, ভোট ধারনকারী যন্ত্র, বৈদ্যুতিক গাড়ির ব্যাটারী, বৈদ্যুতিক শক্তি, ধারনযোগ্য সংগীত এবং ছবি। এসব ক্ষেত্রে উন্নতি সাধনকারী তাঁর কাজগুলো তাঁকে জীবনের শুরুর দিকে একজন টেলিগ্রাফ অপারেটর হিসেবে গড়ে তোলে। বাসস্থান, ব্যবসায়-বানিজ্য বা কারখানায় বিদ্যুৎ শক্তি উৎপাদন ও বন্টনের ধারনা এবং প্রয়োগ দুটিই এডিসনের হাত ধরে শুরু হয় যা আধুনিক শিল্পায়নের একটি যুগান্তকারী উন্নতি। নিউইয়র্কের ম্যানহাটন দ্বীপে তাঁর প্রথম বিদ্যুত কেন্দ্রটি স্থাপিত হয়।
জীবনী: টমাস আলভা এডিসন যুক্তরাষ্ট্রের ওহিও, মিলানে জন্ম গ্রহন করেন এবং মিশিগান রাজ্যের পোর্ট হুরনে বড় হন। এডিসন ছিলেন স্যামুয়েল অগডেন এডিসন (১৮০৪-১৮৯৬) ও ন্যন্সি ম্যাথিউস এলিয়টের (১৮১০-১৮৭১) সপ্তম এবং সর্বশেষ সন্তান। তাঁর পিতাকে কানাডা থেকে পালিয়ে যেতে হয় কারণ তিনি ম্যাকেনজি বিদ্রোহে অংশ নিয়েছিলেন। তিনি একজন ভাল বিপণন জ্ঞান সম্পন্ন ব্যক্তি ছিলেন।
বিবাহ এবং সন্তান: ১৮৭১ সালে ২৫ ডিসেম্বর টমাস আলভা এডিসন ১৬ বছর বয়সি মেরি স্টিলওয়েলকে বিয়ে করেন। তাদের তিনটি সন্তান গ্রহণ করেনঃ মেরিওন এসটেলা এডিসন (১৮৭৩-১৯৬৫),টমাস আলভা এডিসন জুনিয়র (১৮৭৬-১৯৩৫), উইলিয়াম লেসলি এডিসন (১৮৭৮-১৯৩৭)
মেরি এডিসন ১৮৮৪ সালের আগস্টের ৯ তারিখে মৃত্যু বরণ করেন। তারপর ওহিওতে টমাস এডিসন ২০ বছর বয়সি মিনা মিলারকে বিয়ে করেন।তিনি বিখ্যাত উদ্ভাবক লুইস মিলারের কন্যা ছিলেন। তাদের তিনটি সন্তান রয়েছে। মেডেলিইন এডিসন (১৮৮৮-১৯৭৯)। চার্লস এডিসন (১৮৯০-১৯৬৯), যিনি তার বাবার মৃত্যুর পর প্রতিষ্ঠানটি দেখাশোনা করতেন এবং পরে নিউ জার্সির গভর্নর নির্বাচিত হন।থিওডর এডিসন(১৮৯৮-১৯৯২), পদার্থবিদ যার ৮০টির বেশি পেটেন্ট রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here