টঙ্গীতে ছাত্রী উত্তোক্তের ভিডিও প্রচারের দায়ে ৩ বখাটে গ্রেফতার

0
67

টঙ্গী প্রতিনিধি, বিনিয়োগ বার্তা:

গাজীপুরের টঙ্গীর শিলমুন এলাকায় আব্দুল হাকিম মাস্টার উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রীকে চড় থাপ্পড় ও উক্ত্যক্ত করার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করার ঘটনায় এপর্যন্ত তিন বখাটেকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন, ইমন (১৫), সুজন(১৬) ও সাগর(১৫)। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ছাত্রীর বাবা সাত ছাত্রের বিরুদ্ধে গত বৃহস্পতিবার রাতে টঙ্গী মডেল থানায় তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা করেন।

এলাকাবাসি সুত্রে জানা গেছে, টঙ্গীর শিলমুন আব্দুল হাকিম মাস্টার উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ৩ ছাত্রী গত ২৬ এপ্রিল পরীক্ষা শেষে স্কুল থেকে বাসায় ফিরছিল। পথিমধ্যে স্কুল গেটের বাইরে ওৎপেতে থাকা কিছু বখাটে এক ছাত্রীকে উক্ত্যক্ত করে এবং চড় থাপ্পড় দেয়। এক পর্যায়ে শ্লীনতাহানীর চেষ্টা চালায়। এসময় এসব দৃশ্য মোবাইল ক্যামেরায় ভিডিও ধারণ করে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও স্কুল পরিচালনা বোর্ডের সভাপতির ছেলে। পরে তাদের মধ্যে একজন এই ভিডিও ফেসবুকে আপলোড দিয়ে কয়েক ঘণ্টা পর তুলে নেয়।

এ ঘটনায় পরদিন স্কুলে সংশ্লিষ্ট ছাত্রীদের অভিভাবক ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. হেলাল উদ্দিনের উপস্থিতিতে ওই বখাটেদের বেত্রাঘাতের শাস্তি দিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করা হয়। ঘটনার প্রায় পনের দিন পর বৃহস্পতিবার স্থানীয় ৪৭ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন সুজন আলোচিত ভিডিও ফেসবুকে আপলোড দিলে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

পুলিশ ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে টঙ্গীর শিলমুন, মরকুন ও কলেজগেট এলাকা থেকে ৩ বখাটেকে গ্রেফতার করে। তবে প্রভাবশালীদের চাপে ছাত্রলীগ নেতাকে মামলায় আসামী করা হয়নি। এলাকাবাসি আরো জানায়, স্কুলছাত্রী উক্তক্তের ঘটনা ছাড়াও মসজিদে হামলাসহ বেশকিছু অপরাধমূলক ঘটনা প্রশাসনের নজরকে ফাঁকি দিয়ে কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন নিজেই আর্থিক সুবিধার বিনিময়ে আপোষ মীমাংশা করে থাকেন।

এবিষয়ে গাসিক কাউন্সিলর হেলালউদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এটা স্কুলের ভিতরের ঘটনা। রাস্তায় ঘটনা ঘটেছে। তবে আমি কোন মীমাংশা ব্যবস্থা করিনি। এব্যপারে থানায় মামলা হয়েছে।

শিলমুন আব্দুল হাকিম মাস্টার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মনিরুজ্জামানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার ছেলে এ ঘটনার সাথে জড়িত না। তবে অনিক নামের একটি ছেলে ফেসবুকে আপলোড করেছে। অনিক স্কুল পরিচালনা বোর্ডের সভাপতির ছেলে।
টঙ্গী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো.ফিরোজ তালুকদার বলেন, ওই ঘটনার সাথে জড়িত তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বিনিয়োগ বার্তা/এমআর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here