গাজীপুরে জয়ের পিএস পরিচয়দানকারী গ্রেফতার

15
grefter

টঙ্গী(গাজীপুর)প্রতিনিধি, বিনিয়োগ বার্তা:

গাজীপুরের গাছা থানাধীন বোর্ড বাজার এলাকায় থেকে সজীব ওয়াজেদ জয়ের পিএস পরিচয়দানকারী মোঃ সাব্বির মন্ডল (২১)নামে এক প্রতারকে গ্রেফতার করে স্পেশালাইজড কোম্পানী পোড়াবাড়ী ক্যাম্প র‌্যাব-১ গাজীপুর। কোম্পানীর কোম্পানী কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল-মামুন, (জি), বিএন এবং স্কোয়াড কমান্ডার সিনিঃ সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ গোলাম মোর্শেদ এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সসহ গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গাছা বোর্ড বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত- সাব্বির গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা থানার উত্তর গুটিয়া সরদার পাড়া গ্রামের মৃত আয়ুইব আলী ছেলে। গাজীপুর হারিকেন রোড সালাউদ্দিন প্লাজার সামনে মোঃ নাসির উদ্দিন এর বাড়ীর ভাড়াটিয়া থেকে বিভিন্ন মানুয়ের সাথে প্রতারণা করত।
গাজীপুর পোড়াবাড়ী ক্যাম্প র‌্যাব-১ আব্দুল্লাহ আল-মামুন জানান, দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন উপায়ে এই ধরনের প্রতারনা করে আসছে। সে বিভিন্ন সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব কখনো কখনো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় এর পিএস সামসুল/মাসুদ/মনির নামে পরিচয় দিয়ে বগুড়া-৫ আসনের এমপি ১। জনাব মোঃ হাবিবুর রহমান, ২। গাইবান্ধা-৩ আসনের এমপি জনাব ডাঃ ইউনুস সরকার, ৩। রবিশাল-৫ আসনের এমপি জেবুন্নেসা আফরোজ, ৪। খুলনা-৩ আসনের এমপি মনুজান সুফিয়ান, ৫। কক্সবাজার-৪ আসনের এমপি জনাব আব্দুর রহমান, ৬। সিলেট-৩ আসনের এমপি মাহমুদুর সামাদ, ৭। গাজীপুর-৫ আসনের এমপি মেহের আফরোজ চুমকি, ৮। গাজীপুর-৩ আসনের এমপি এড. মোঃ রহমত উল্লাহ, ৯। লালমনির হাট-১ আসনের এমপি জনাব মোঃ মোতাহার হোসেন, ১০। নারায়ানগঞ্জ এর এমপি শামীম ওসমান এবং গোলাম দস্তগীর গাজী, ঢাকার এমপি এড. সাহারা খাতুনসহ ৩০ থেকে ৪০ জন এমপি’র নিকট মোবাইল ফোনে আবার কখনো কখনো এসএমএস এর মাধ্যমে একাদশ জাতীয় নির্বাচন-২০১৮ এ মনোনয়ন দেওয়ার কথা বলে প্রত্যেকের কাছে লক্ষ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করে। ইহা ছাড়াও বিভিন্ন মন্ত্রী, এমপি, সচিব, ব্যবসায়ীদেরকে ফোন দিয়ে বিভিন্ন চাঁদা, ঘুষ চাকুরীর তদবির করে আসছিল। উপরোক্ত এমপি মহোদয়গণের অভিযোগের ভিত্তিতে গত ০৬/১২/২০১৮ইং তারিখে র‌্যাব-১, স্পেশালাইজড কোম্পানী, পোড়াবাড়ী ক্যাম্প, গাজীপুর এর একটি আভিযানিক দল ঘটনাস্থলে এসে প্রতারক মোঃ সাব্বির মন্ডল(২১)কে আটক করে। গ্রেফতারকৃত আসামীকে ব্যাপকভাবে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, সে দীর্ঘদিন ধরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় এর পিএস পরিচয় দিয়ে সচিবালয়সহ বিভিন্ন সরকারী সংস্থায় চাকুরী দেওয়ার নামে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে বিপুল পরিমানের অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে বলে স্বীকার করে। এসময় আসামীর নিকট হতে ০২ টি মোবাইল ও ০৮ টি সিমকার্ড উদ্ধার করা হয়।

আরও পড়তে পারেন :  রাজধানীতে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here