এবার কোয়ারেন্টাইনে তাহসান

37

করোনা ভাইরাসের কারণে জাপান থেকে ফেরার পর কোয়ারেন্টাইনে আছেন সংগীতশিল্পী ও অভিনেতা তাহসান খান। নিজের বাসাতেই নিজেকে বন্দি রেখেছেন এ তারকা।

এই তারকা জাপান থেকে দেশে ফেরার পর গত ১৪ মার্চ ফেসবুকে এক পোস্টের মাধ্যমে তিনি লেখেন, প্রিয় প্রযোজক, পরিচালক ও কনসার্টের আয়োজক- আমি আমার সব কাজ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সামাজিক বিচ্ছিন্নকরণ হলো এ মুহূর্তে সবচেয়ে বড় সমাধান। আশাকরি, আপনারা বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন।

বলা যায়, এভাবেই তাহসান নিজ বাসায় স্বেচ্ছাবন্দি করেছেন নিজেকে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বুধবার (১৮ মার্চ) তার একটি নাটকের শুটিংয়ে অংশ নেয়ার কথা ছিল। আগামী সপ্তাহেও তার নাটকের কাজ ছিল। তবে পরিচালকদের তিনি নিজের অপারগতার কথা জানিয়ে দিলেন। বললেন, এখন কাজের সময় নয়; নিজেদের বাঁচানোর সময়।

এদিকে বিশ্বজুড়ে এমন পরিস্থিতি নিয়ে তাহসান আরো বলেন, এখন নিজেকে আলাদা করে রাখাটা আপনার-আমার সবার দায়িত্ব। একমাত্র এর মাধ্যমেই এ সঙ্কট মোকাবিলা করা সম্ভব।

আরও পড়তে পারেন :  লকডাউনে ভারত কাঁপাচ্ছে আইয়ুব বাচ্চুর ‘সেই তুমি’

জানান, বাসায় এভাবে দিনের পর দিন সময় কাটানো তার জন্য কষ্টকর হয়ে উঠছে। তারপরও এভাবেই থাকতে চান। জানালেন, বাসায় বসে অনলাইন, টিভি ও নিজের কাজের চর্চা করেই সময় কাটাচ্ছেন এই তারকা।

এর আগে সোমবার (১৬ মার্চ) যুক্তরাষ্ট্র থেকে ঢাকায় ফেরেন অভিনেত্রী ও নির্মাতা মেহের আফরোজ শাওন। করোনা ভাইরাসের কারণে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন এই অভিনেত্রী।

ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে শাওনের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু তিনি আক্রান্ত না হলেও ধানমন্ডির নিজ বাসায় হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে জানিয়েছেন এই তারকা।

ফেসবুকে শাওন লেখেন, বেশ আগে প্রতিশ্রুতি দেওয়া একটি বইমেলায় অংশ নিতে যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছিলাম। ওয়াশিংটনে প্রকোপ থাকলেও নিউইয়র্কে করোনার প্রকাশ পায়নি তখনও। ভাইরাসটির সংক্রমণ বাড়ার পরপরই আমেরিকার বিভিন্ন স্টেটে সতর্কবার্তা জারি হয়ে যায়। তারপর ঘর থেকে বের হইনি একদম। চলতি বছরের ৩০ ও ৩১ মে নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিতব্য হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্মেলন-২০২০-এর সংবাদ সম্মেলন বাতিল এবং মূল অনুষ্ঠানের তারিখ স্থগিত করা হয় তৎক্ষণাৎ। প্রতি মুহূর্তের খবর দেখছিলাম আর ভাবছিলাম বাচ্চা দু’টোর কাছে ফিরতে পারবো তো?’

আরও পড়তে পারেন :  লকডাউনে ভারত কাঁপাচ্ছে আইয়ুব বাচ্চুর ‘সেই তুমি’

তিনি আরো লেখেন, ‘পরম করুণাময়ের অশেষ কৃপায় গতকাল দেশে ফিরেছি। ঢাকা বিমানবন্দরে স্বাস্থ্য বিষয়ক সতর্ক অবস্থান দেখে ভালো লাগলেও দুবাই থেকে ফেরার ফ্লাইটে মধ্যপ্রাচ্যের যাত্রীদের গণহারে প্যারাসিটামল কিংবা প্যানাডল খেয়ে ‘জ্বর যেন না ওঠে তাইলে মেশিনে আটকায়ে দিবে’ ধরনের আচরণ খুব আশংকাজনক লেগেছে!’

‘কোয়ারেন্টাইন’ শব্দটার প্রতি সবার এক অজানা ভীতি রয়েছে বলে জানান শাওন। মাত্র ১৪ দিন নিয়ম মেনে আলাদা থাকলে পরিবারের অন্য সদস্যরা করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ঝুঁকিমুক্ত থাকবে- এই কথা ৪ থেকে ৫ জনকে বোঝাবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। তবে পরিবারের সঙ্গে কথা বলে নিজের বিষয়ে আগেই সিদ্ধান্ত নিয়ে রেখেছিলেন তিনি।

আরও পড়তে পারেন :  লকডাউনে ভারত কাঁপাচ্ছে আইয়ুব বাচ্চুর ‘সেই তুমি’

কোয়ারেন্টাইনে প্রসঙ্গে শাওন লেখেন, আমি গতকাল থেকে আমার ধানমন্ডির বাসায় সবার থেকে আলাদা আছি। আমার মা’র বাড়িতে থাকা পুত্রদের সঙ্গে ঘণ্টায় ঘণ্টায় ভিডিও কলে কথা হচ্ছে। দখিণ হাওয়া’য় আমার বাসার দরজা প্রথমবারের জন্য তালাবন্ধ রাখা হয়েছে!

‘আমি ভালো আছি। জ্বর, কাশি, গা ব্যথা কিছুই নেই’, লিখে সবাইকে আশ্বস্ত করেন তিনি।

সবশেষে সবার ভালো থাকার কামনা করে অন্যদের ব্যাপারেও সচেতন থাকার আহ্বান জানান শাওন।

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here