অনলাইনে খাবার অর্ডারে যেসব বিষয়ে সতর্ক থাকবেন

52

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে যতটা সম্ভব সতর্ক থাকার চেষ্টা করছেন বেশিরভাগ মানুষ। তাই বাইরে না গিয়ে বরং অনলাইনেই কেনাকাটার পাট সারতে চাইছেন অনেকে। খাদ্য সামগ্রী এবং অন্যান্য জিনিসপত্র অর্ডার করছেন। তবে এই বাইরে থেকে আসা জিনিসপত্রগুলো আপনার জন্য সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে।

খাবার অর্ডার দেয়ার ক্ষেত্রে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হবে কিনা তা নিয়ে অনেকে সংশয়ে থাকেন। অনলাইনে খাবার অর্ডার করা কি আপনার জন্য নিরাপাদ? বিশেষজ্ঞদের তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত ফুড বা ফুড প্যাকেজিংয়ের মাধ্যমে করোনাভাইরাস সংক্রমণের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি, কারণ ভালোভাবে রান্না করা হলে এই ভাইরাস বেঁচে থাকে না, তাই অনলাইনে অর্ডার করা খাবার সম্পূর্ণ নিরাপদ।

ফুড প্যাকেজিংয়ের সংস্পর্শের কারণে সংক্রামিত হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ হলেও সতর্কতা অবলম্বন করা জরুরি। আপনি যদি অনলাইনে খাবারের অর্ডার করে থাকেন, তবে এই বিষয়গুলোতে অবশ্যই নজর দেবেন-

খাবার অর্ডার করতে, আপনি ‘কনট্যাক্টলেস ডেলিভারি’ বিকল্পটি নির্বাচন করুন। ‘কনট্যাক্টলেস ডেলিভারি’র ক্ষেত্রে, ফুড ডেলিভারি দেওয়া ব্যক্তিটি আপনার খাবারটি আপনার দরজার বাইরে রাখবে, ডোরবেল বাজাবে এবং ডেলিভারি করা হয়েছে তা নিশ্চিত করার জন্য আপনাকে কল করবে। এতে আপনি নিজের অর্ডারও পাবেন এবং ডেলিভারি দেওয়া ব্যক্তির থেকে নিরাপদ দূরত্বও বজায় রাখতে পারবেন।

খাবারের প্যাকেটটি ভিতরে আনার আগে ক্যারি ব্যাগটি বাইরের ডাস্টবিনে ফেলে দিন। খাবারটি একটি পরিষ্কার পাত্রে ঢালুন, প্যাকেটটি ডাস্টবিনে ফেলে দিন। যদি আপনার খাবারটি গরম না থাকে তবে খাওয়ার আগে গরম করুন। হাত দিয়ে না খাওয়ার পরিবর্তে চামচ এবং কাঁটা চামচ ব্যবহার করা উচিত।

নিরাপদ থাকার জন্য খাওয়ার আগে এবং প্যাকেটে হাত দেয়ার পরে ভালোভাবে হাত ধোবেন।

ক্যাশ পেমেন্ট করা এড়ানোর চেষ্টা করুন। আপনি যদি নগদ অর্থ প্রদান করেন তবে পুরো অর্থ দেওয়ার চেষ্টা করুন, যাতে আপনাকে বিপরীত মানুষটির কাছ থেকে কোনো চেঞ্জ নিতে না হয়। যতদূর সম্ভব, ডিজিটাল পেমেন্ট করুন।

 

বিনিয়োগ বার্তা//এল//

 

আপনার মতামত দিন :

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here